আজকের কৌতুক : স্ত্রীর জ্বালায় জীবন কেরোসিন!

স্ত্রীর জ্বালায় জীবন কেরোসিন!শ্রেণিকক্ষে বাংলা শিক্ষক আট লাইনের কবিতা লিখতে দিয়েছেন। এরপর বল্টু লিখেছে—ছাগলের লেজ ছোট ছোটকুকুরের লেজ বাঁকা,ওই মেয়ে তোর চেহারাটাদারুণ ঝাঁকানাকা। মোটরসাইকেল দুই চাক্কাভ্যানের চাক্কা তিন,বউর জ্বালায় সব স্বামীর জীবন কেরোসিন! **** রাত ২টায় জরুরি কাজ!এক বন্ধু রাত ২টায় আরেক বন্ধুর কাছে ফোন করেছে—১ম বন্ধু: দোস্ত, একটু আমার বাসায় আয় জরুরি কাজ আছে।২য় বন্ধু: আমি এখন আসতে পারব না, ঘুম পাচ্ছে।১ম বন্ধু: প্লিজ আয় না, জরুরি কাজ আছে। কিছুক্ষণ পর বন্ধু ভাবল হয়তো খুব জরুরি কাজ হবে, তা ভেবে সে বন্ধুর বাসায় গেল—২য় বন্ধু: কিরে, কী জরুরি কাজ তোর এত রাতে?১ম বন্ধু: দোস্ত, টিভি আর লাইটের সুইচটা একটু অফ করে দিয়ে যা। খুব শীত লাগছে, লেপ ছেড়ে উঠতে পারছি না। তাই তোকে ফোন দিলাম। **** ভোররাতের স্বপ্ন সত্য হয়মেয়ে: জান, শুনেছি ভোররাতের স্বপ্ন না-কি সত্য হয়। কথাটা কি ঠিক?ছেলে: হ্যাঁ, হয় তো।মেয়ে: আজকে স্বপ্নে দেখেছি, তুমি আমাকে ১০০০ টাকার ১টা নোট দিয়েছো। কই, দাও। পরের দিন আবার মেয়ে বলল- মেয়ে: জান, ভোররাতের স্বপ্ন না-কি সত্য হয়?ছেলে: ওসব ভুয়া কথা।মেয়ে: বাঁচলাম, আজকে একটা খারাপ স্বপ্ন দেখেছি।ছেলে: কী দেখেছো?মেয়ে: দেখেছি, আমি তোমাকে ৫০০০ টাকা দিয়েছি। এসইউ/জেআইএম

আজকের কৌতুক : স্ত্রীর জ্বালায় জীবন কেরোসিন!

স্ত্রীর জ্বালায় জীবন কেরোসিন!
শ্রেণিকক্ষে বাংলা শিক্ষক আট লাইনের কবিতা লিখতে দিয়েছেন। এরপর বল্টু লিখেছে—
ছাগলের লেজ ছোট ছোট
কুকুরের লেজ বাঁকা,
ওই মেয়ে তোর চেহারাটা
দারুণ ঝাঁকানাকা।

মোটরসাইকেল দুই চাক্কা
ভ্যানের চাক্কা তিন,
বউর জ্বালায় সব স্বামীর
জীবন কেরোসিন!

****

রাত ২টায় জরুরি কাজ!
এক বন্ধু রাত ২টায় আরেক বন্ধুর কাছে ফোন করেছে—
১ম বন্ধু: দোস্ত, একটু আমার বাসায় আয় জরুরি কাজ আছে।
২য় বন্ধু: আমি এখন আসতে পারব না, ঘুম পাচ্ছে।
১ম বন্ধু: প্লিজ আয় না, জরুরি কাজ আছে।

কিছুক্ষণ পর বন্ধু ভাবল হয়তো খুব জরুরি কাজ হবে, তা ভেবে সে বন্ধুর বাসায় গেল—
২য় বন্ধু: কিরে, কী জরুরি কাজ তোর এত রাতে?
১ম বন্ধু: দোস্ত, টিভি আর লাইটের সুইচটা একটু অফ করে দিয়ে যা। খুব শীত লাগছে, লেপ ছেড়ে উঠতে পারছি না। তাই তোকে ফোন দিলাম।

****

ভোররাতের স্বপ্ন সত্য হয়
মেয়ে: জান, শুনেছি ভোররাতের স্বপ্ন না-কি সত্য হয়। কথাটা কি ঠিক?
ছেলে: হ্যাঁ, হয় তো।
মেয়ে: আজকে স্বপ্নে দেখেছি, তুমি আমাকে ১০০০ টাকার ১টা নোট দিয়েছো। কই, দাও।

পরের দিন আবার মেয়ে বলল-
মেয়ে: জান, ভোররাতের স্বপ্ন না-কি সত্য হয়?
ছেলে: ওসব ভুয়া কথা।
মেয়ে: বাঁচলাম, আজকে একটা খারাপ স্বপ্ন দেখেছি।
ছেলে: কী দেখেছো?
মেয়ে: দেখেছি, আমি তোমাকে ৫০০০ টাকা দিয়েছি।