আজ ব্লগার অভিজিৎ হত্যার রায়

আজ মঙ্গলবার (১৬ ফেব্রুয়ারি) ঘোষণা করা হবে ব্লগার অভিজিৎ হত্যার রায়। দুপুর ১২টার দিকে ঢাকার সন্ত্রাসবিরোধী বিশেষ ট্রাইব্যুনালের বিচারক মো. মজিবুর রহমান রায় ঘোষণা করবেন বলে আদালত সূত্রে প্রকাশ।

আজ ব্লগার অভিজিৎ হত্যার রায়

অমর একুশে গ্রন্থমেলা উপলক্ষে বই প্রকাশ ও প্রকাশনা অনুষ্ঠানে যোগ দিতে ২০১৫ সালের ২৬ ফেব্রুয়ারি সস্ত্রীক দেশে আসেন যুক্তরাষ্ট্র প্রবাসী অভিজিৎ রায়। ওই দিন রাতে বইমেলা থেকে ফেরার পথে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় এলাকায় টিএসসির সামনে অভিজিৎ রায় ও তার স্ত্রী রাফিদা আহমেদ বন্যার ওপর হামলা চালায় দুর্বৃত্তরা। এতে ঘটনাস্থলে মারা যায় অভিজিৎ। গুরুতর আহত হন বন্যা। 

ঐ ঘটনায় অভিজিতের বাবা অধ্যাপক ড. অজয় রায় শাহবাগ থানায় হত্যা মামলা করেন। মামলায় তদন্ত করে পুলিশের কাউন্টার টেরোরিজম ইউনিটের পরিদর্শক মনিরুল ইসলাম ২০১৯ সালের মার্চ মাসে আদালতে চার্জশিট দাখিল করেন। ওই বছরের ১ আগস্ট ৬ আসামির বিরুদ্ধে চার্জ গঠন করেন ট্রাইব্যুনাল।

আসামিদের বিরুদ্ধে অভিযোগ প্রমাণ করতে পেরেছেন মর্মে তাদের সর্বোচ্চ সাজা প্রত্যাশা করছেন রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী গোলাম ছারোয়ার খান জাকির। অন্যদিকে, রাষ্ট্রপক্ষ অভিযোগ প্রমাণ করতে পারেনি দাবি করে আসামিরা খালাস পাবেন বলে মনে করছেন আসামিপক্ষের আইনজীবী নজরুল ইসলাম।

আলোচিত এ মামলার আসামিরা হলেন- বরখাস্তকৃত মেজর সৈয়দ জিয়াউল হক জিয়া, আকরাম হোসেন ওরফে হাসিব ওরফে আবির ওরফে আদনান ওরফে আবদুল্লাহ, আবু সিদ্দিক সোহেল, মোজাম্মেল হুসাইন ওরফে সায়মন, আরাফাত রহমান সাজ্জাদ ওরফে শামস্ ও শাফিউর রহমান ফারাবী। মেজর জিয়া ও আকরাম হোসেন পলাতক রয়েছেন। অপর ৪ আসামি কারাগারে আছেন। 

২১ জানুয়ারি এ মামলায় সাক্ষ্য গ্রহণ শেষ হয়। মামলায় চার্জশিটভুক্ত ৩৪ জন সাক্ষীর মধ্যে ২৮ জনের সাক্ষ্য গ্রহণ করেন ট্রাইব্যুনাল। গত ২৭ জানুয়ারি কারাগারে থাকা ৪ আসামি আত্মপক্ষ শুনানিতে নিজেদের নির্দোষ দাবি করেন। গত ৪ ফেব্রুয়ারি আদালত রাষ্ট্রপক্ষ এবং আসামিপক্ষের যুক্তিতর্ক উপস্থাপন শেষে রায়ের তারিখ ধার্য্য  করেন।