আদালতের ইংরেজি রায় বাংলা করবে ‘আমার ভাষা’ সফটওয়্যার

ইংরেজি ভাষায় দেয়া আদালতের রায়গুলো বাংলায় অনুবাদ করবে ‘আমার ভাষা’ নামে একটি সফটওয়্যার। এই সফটওয়্যারটির ব্যবহার বিচারপ্রার্থী এবং সাধারণ জনগণের কাছে আদালতের রায়গুলো আরও সহজবোধ্য করে তুলবে। এই সফটওয়্যার নির্মাণে সহযোগিতা করেছে ভারত। বৃহস্পতিবার (১৮ ফেব্রুয়ারি) বাংলাদেশ সুপ্রিম কোর্টে এর উদ্বোধন করা হয়। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন আইন, বিচার ও সংসদ বিষয়ক মন্ত্রী আনিসুল হক। প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে এর উদ্বোধন করেন প্রধান বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেন। এ সময় আইন মন্ত্রী বলেন, বাংলাদেশের সর্বোচ্চ আদালতে ইংরেজি ভাষায় প্রদত্ত রায় বাংলা ভাষায় অনুবাদের এই প্রযুক্তিগত সহযোগিতা এদেশের বিচারপ্রার্থী মানুষের ‘অ্যাকসেস টু জাস্টিস’ নিশ্চিতকরণে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে। তিনি জানান, প্রথম পর্যায়ে কেবল উচ্চ আদালতের রায়গুলো বাংলায় অনুবাদের জন্য ‘আমার ভাষা’ সফটওয়্যার ব্যবহার করা হবে। পর্যায়ক্রমে নিম্ন আদালতের রায়ের ক্ষেত্রেও এটি ব্যবহার করা হবে। মন্ত্রী বলেন, এতদিনে দেশের সব আদালতের সমস্ত কার্যক্রম বাংলা ভাষাতেই হওয়া বাঞ্ছনীয় ছিল। ঔপনিবেশিক আমল থেকে আদালতগুলোর কার্যক্রম ইংরেজি ভাষায় পরিচালিত হয়ে আসছে। আদালতগুলোতে এ কারণেই ইংরেজি ভাষায় রায় ও আদেশ প্রদানে অভ্যস্ততা তৈরি হয়েছে। তাছাড়া আইন বিষয়ে এখন পর্যন্ত পর্যাপ্ত বাংলা পরিভাষা ও পরিকাঠামো তৈরি হয়নি। ফলে উচ্চ আদালতে শতভাগ বাংলা ভাষার প্রচলন করার বাস্তবসম্মত অসুবিধা এখনও রয়েছে। এই সমস্যা সমাধানের ক্ষেত্রে আমার ভাষা সফটওয়্যারটি কার্যকর ভূমিকা পালন করবে। তিনি আশা প্রকাশ করেন, আগামীতে দেশের আদালত সমূহে আর এরকম কোন অনুবাদ সফটওয়্যার প্রয়োজন হবে না। কারণ সরকার আদালতসহ রাষ্ট্রের সব ক্ষেত্রে বাংলা ভাষার প্রচলন করে একুশের চেতনাকে রাষ্ট্রের সকল ক্ষেত্রে প্রতিষ্ঠা করার লক্ষে কাজ করছে। অনুষ্ঠানে ঢাকায় নিযুক্ত ভারতীয় হাইকমিশনার বিক্রম কুমার দোরাইস্বামী, অ্যাটর্নি জেনারেল এএম আমিন উদ্দীন, আইন ও বিচার বিভাগের সচিব মো. গোলাম সারওয়ার প্রমুখ বক্তৃতা করেন। এফএইচ/এসএস/জিকেএস

আদালতের ইংরেজি রায় বাংলা করবে ‘আমার ভাষা’ সফটওয়্যার

ইংরেজি ভাষায় দেয়া আদালতের রায়গুলো বাংলায় অনুবাদ করবে ‘আমার ভাষা’ নামে একটি সফটওয়্যার। এই সফটওয়্যারটির ব্যবহার বিচারপ্রার্থী এবং সাধারণ জনগণের কাছে আদালতের রায়গুলো আরও সহজবোধ্য করে তুলবে। এই সফটওয়্যার নির্মাণে সহযোগিতা করেছে ভারত।

বৃহস্পতিবার (১৮ ফেব্রুয়ারি) বাংলাদেশ সুপ্রিম কোর্টে এর উদ্বোধন করা হয়। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন আইন, বিচার ও সংসদ বিষয়ক মন্ত্রী আনিসুল হক। প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে এর উদ্বোধন করেন প্রধান বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেন।

এ সময় আইন মন্ত্রী বলেন, বাংলাদেশের সর্বোচ্চ আদালতে ইংরেজি ভাষায় প্রদত্ত রায় বাংলা ভাষায় অনুবাদের এই প্রযুক্তিগত সহযোগিতা এদেশের বিচারপ্রার্থী মানুষের ‘অ্যাকসেস টু জাস্টিস’ নিশ্চিতকরণে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে।

তিনি জানান, প্রথম পর্যায়ে কেবল উচ্চ আদালতের রায়গুলো বাংলায় অনুবাদের জন্য ‘আমার ভাষা’ সফটওয়্যার ব্যবহার করা হবে। পর্যায়ক্রমে নিম্ন আদালতের রায়ের ক্ষেত্রেও এটি ব্যবহার করা হবে।

মন্ত্রী বলেন, এতদিনে দেশের সব আদালতের সমস্ত কার্যক্রম বাংলা ভাষাতেই হওয়া বাঞ্ছনীয় ছিল। ঔপনিবেশিক আমল থেকে আদালতগুলোর কার্যক্রম ইংরেজি ভাষায় পরিচালিত হয়ে আসছে। আদালতগুলোতে এ কারণেই ইংরেজি ভাষায় রায় ও আদেশ প্রদানে অভ্যস্ততা তৈরি হয়েছে। তাছাড়া আইন বিষয়ে এখন পর্যন্ত পর্যাপ্ত বাংলা পরিভাষা ও পরিকাঠামো তৈরি হয়নি। ফলে উচ্চ আদালতে শতভাগ বাংলা ভাষার প্রচলন করার বাস্তবসম্মত অসুবিধা এখনও রয়েছে। এই সমস্যা সমাধানের ক্ষেত্রে আমার ভাষা সফটওয়্যারটি কার্যকর ভূমিকা পালন করবে।

তিনি আশা প্রকাশ করেন, আগামীতে দেশের আদালত সমূহে আর এরকম কোন অনুবাদ সফটওয়্যার প্রয়োজন হবে না। কারণ সরকার আদালতসহ রাষ্ট্রের সব ক্ষেত্রে বাংলা ভাষার প্রচলন করে একুশের চেতনাকে রাষ্ট্রের সকল ক্ষেত্রে প্রতিষ্ঠা করার লক্ষে কাজ করছে।

অনুষ্ঠানে ঢাকায় নিযুক্ত ভারতীয় হাইকমিশনার বিক্রম কুমার দোরাইস্বামী, অ্যাটর্নি জেনারেল এএম আমিন উদ্দীন, আইন ও বিচার বিভাগের সচিব মো. গোলাম সারওয়ার প্রমুখ বক্তৃতা করেন।

এফএইচ/এসএস/জিকেএস