আন্দুলবাড়িয়া হাইস্কুলে টাকার বিনিময়ে এমএলএসএস পদে নিয়োগ দেয়ার পায়তারা

আন্দুলবাড়িয়া হাইস্কুলের এমএলএসএস পদে নিয়োগ পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে ৩ ফেব্রুয়ারী বুধবার সকাল ১০ টায় চুয়াডাঙ্গা সরকারী ভিজে স্কুলে। এলাকায় গুঞ্জন উঠেছে মোট ১১ জন আবেদন কারী পরীক্ষায় অংশ নিলেও নিয়োগ দেয়া হবে জীবননগর উপজেলার নিশ্চিন্তপুর গ্রামের আ.গফুরের ছেলে মনির কে।

আন্দুলবাড়িয়া হাইস্কুলে টাকার বিনিময়ে এমএলএসএস পদে নিয়োগ দেয়ার পায়তারা

কারন হিসাবে জানা গেছে মোট দু'দফায় ২০১৪ সালে তার কাছ থেকে ৮ লাখ টাকা নেয়া হয়েছিল,এবং সম্প্রতি ২ দিন আগে নেয়া হয়েছে আড়াই লাখ টাকা। আর অভিযোগের তীর ঐ স্কুল ব্যবস্থাপনা কমিটির সভাপতি এবং স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যানের প্রতি। আর অত্যন্ত গোপনে কাজটি সারতে আন্দুলবাড়িয়া স্কুলের নিয়োগ পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে চুয়াডাঙ্গার সরকারী ভিজে স্কুলে। এ ব্যাপার এলাকাবাসী ৩ ফেব্রুয়ারীর-২০২১ এর উক্ত অবৈধ নিয়োগ প্রক্রিয়া বন্ধ করে স্বচ্ছতার ভিত্তিতে নতুন করে নিয়োগ পরীক্ষার মাধ্যমে সঠিক প্রার্থীকে নিয়োগ দানের দাবী জানিয়েছে। তা না হলে এলাকার সকল মানুষকে সাথে নিয়ে এব্যাপারে তীব্র আন্দোলন গড়ে তোলা হবে বলেও জানিয়েছে আন্দুলবাড়িয়ার সর্বস্তরের মানুষ। 

সাড়ে ১০ লাখ টাকার বিনিময়ে মনিরকে নিয়োগ দেয়া হচ্ছে লাকাবাসীর এমন অভিযোগ সম্পর্কে জানতে চাইলে আন্দুলবাড়িয়া হাইস্কুলের সভাপতি শফিকুল ইসলাম মোক্তার এ প্রতিবেদককে জানান, এ অভিযোগ সসম্পুর্ন মিথ্যা। 

জীবননগর উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার দিনেশ কুমার পাল বলেন,  সসম্পুর্ন স্বচ্ছতার ভিত্তিতে নিয়োগ প্রক্রিয়া সম্পাদন করা হবে, কোনরুপ ব্যত্যয় করা হবে না।