আল-জাজিরার প্রতিবেদন সরানোর অনুরোধ বিটিআরসির

আল-জাজিরায় সম্প্রচারিত ‘অল দা প্রাইম মিনিস্টারস মেন’ শিরোনামের তথ্যচিত্র আদালতের আদেশের পর ফেইসবুক ও ইউটিউব থেকে সরাতে উদ্যোগ নিয়েছে বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশন ...

আল-জাজিরার প্রতিবেদন সরানোর অনুরোধ বিটিআরসির

আল-জাজিরায় সম্প্রচারিত ‘অল দা প্রাইম মিনিস্টারস মেন’ শিরোনামের তথ্যচিত্র আদালতের আদেশের পর ফেইসবুক ও ইউটিউব থেকে সরাতে উদ্যোগ নিয়েছে বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশন (বিটিআরসি)।

বিটিআরসির চেয়ারম্যান শ্যাম সুন্দর সিকদার সংস্থাটির জনসংযোগ বিভাগের মাধ্যমে দেওয়া এক বিবৃতিতে এ কথা জানিয়েছেন। 

বুধবার আল–জাজিরায় প্রচারিত ‘অল দ্য প্রাইম মিনিস্টারস মেন’ তথ্যচিত্রটি দেশ-বিদেশে ইউটিউব, ফেসবুক, টুইটারসহ অন্যান্য সামাজিক যোগাযোগামাধ্যম থেকে অপসারণে দ্রুত যথাযথ পদক্ষেপ নিতে হাইকোর্ট  বিটিআরসিকে নির্দেশ দেন।

এ বিষয়ে বিটিআরসির চেয়ারম্যান শ্যাম সুন্দর সিকদার বলেন, বাংলাদেশকে নিয়ে আল–জাজিরায় প্রচারিত কনটেন্ট সরানোর বিষয়ে ইতিমধ্যে বিটিআরসি টেলিফোন ও ই–মেইলের মাধ্যমে ফেসবুক ও ইউটিউব কর্তৃপক্ষকে অনুরোধ করেছে। 

তিনি আরও বলেন, বিজ্ঞ হাইকোর্ট ওই কনটেন্ট সরানোর বিষয়ে নির্দেশনা দিয়েছেন। তাই বিটিআরসি কনটেন্ট সরানোর বিষয়ে যথাযথ পদক্ষেপ গ্রহণ করবে।

অবশ্য বিটিআরসির এই অনুরোধ ইউটিউব ও ফেসবুক শুনবে কি না, তা নিশ্চিত নয়। বাংলাদেশে ফেসবুক একটি জনসংযোগ প্রতিষ্ঠান নিয়োগ দিয়েছে। তাদের কাছে বিষয়টি নিয়ে প্রথম আলোর পক্ষ থেকে ফেসবুকের বক্তব্য চাওয়া হয়। 

জনসংযোগ প্রতিষ্ঠানটি ফেসবুকের একজন মুখপাত্রের বরাত দিয়ে বলেছে, ফেসবুক এখনো অনুরোধটি পায়নি। অন্যদিকে হাইকোর্টের নির্দেশের বিষয়ে ফেসবুক বলেছে, বিষয়টি তারা গণমাধ্যমের খবরের মাধ্যমে জেনেছে। বিটিআরসির কাছ থেকে হাইকোর্টের নির্দেশ–সংবলিত কোনো কিছু সন্ধ্যা পর্যন্ত পায়নি।

বিটিআরসি কবে ফেসবুক ও ইউটিউবকে অনুরোধ করেছে, তা জানা যায়নি। সংস্থাটির ভাইস চেয়ারম্যান সুব্রত রায় মৈত্র বলেন, সম্প্রতি তারা ফেসবুককে কর্তৃপক্ষের নির্দেশে অনুরোধটি জানিয়েছেন। 

বাংলাদেশে একটি নির্দিষ্ট কনটেন্ট দেখানো বন্ধ করা যায় কি না— জানতে চাইলে সুব্রত রায় মৈত্র বলেন, টেলিযোগাযোগ অধিদপ্তর সব কনটেন্ট বন্ধ করতে পারে না। কোনো একটি নির্দিষ্ট কনটেন্ট বন্ধ সম্ভব কি না, তা যাচাই করে দেখতে হবে।