কম ঘুমিয়ে ডেকে আনছেন মারাত্মক বিপদ!

কাজের চাপে কিংবা মোবাইলে বুঁদ হয়ে অনেকেই ঘুমটাকে পূর্ণতা দিতে পারছেন না! হয়তো, অন্য কোন কারণেও আপনার রাতে ঠিকমত বা পর্যাপ্ত ঘুম হচ্ছে না। তবে আপনি জানেন কি একজন পূর্ণ বয়স্ক মানুষের জন্য ...

কম ঘুমিয়ে ডেকে আনছেন মারাত্মক বিপদ!
কাজের চাপে কিংবা মোবাইলে বুঁদ হয়ে অনেকেই ঘুমটাকে পূর্ণতা দিতে পারছেন না! হয়তো, অন্য কোন কারণেও আপনার রাতে ঠিকমত বা পর্যাপ্ত ঘুম হচ্ছে না। তবে আপনি জানেন কি একজন পূর্ণ বয়স্ক মানুষের জন্য অন্তত আট ঘন্টা ঘুমানো জরুরী। যদি এর চেয়ে কম ঘুমান তাহলে নিজের অজান্তেই শরীরের কি মারাত্মক ক্ষতি ডেকে আনছেন তা আপনার কল্পনার বাইরে! ঘুমে ঘাটতি থাকলে শারীরবৃত্তীয় ও মানসিক সমস্যা ছাড়াও বেশ কিছু জটিল সমস্যার সৃষ্টি হতে পারে। যেমন: 

কম ঘুমোচ্ছেন অথচ শরীর তো সুস্থই আছে। আপনি ভাবছেন, আহ! আমি তো বেশ আছি। তবে আপনি খেয়াল করলে দেখতে পারবেন, আগের মতো আপনার কাজে সবসময় মন বসছে না। হাজারো আবোলতাবোল ভাবনা পাক খাচ্ছে মাথার মধ্যে। কোনো কিছুর প্রতি ইচ্ছাশক্তি কমে যাচ্ছে।

সমীক্ষা বলছে, একজন পূর্ণবয়স্ক মানুষের প্রতিদিন রাতে পর্যাপ্ত পরিমাণ ঘুম দরকার। না হলে শরীরে দেখা দেবে নানা উপসর্গ। কম ঘুমোলে আপনি মোটা হয়ে যাবেন। দেখা দিতে পারে ডায়াবেটিসও। একইসঙ্গে কম ঘুমে শরীরে বিপজ্জনকভাবে কমে যায় গুড কোলেস্টেরল। যার ফলে বেড়ে যাবে আপনার হৃদরোগের ঝুঁকি।

এছাড়া, রাতে কম ঘুমালে শরীরের ক্লান্ত ভাব, শরীরের অতিরিক্ত ওজন বৃদ্ধি, খাবার হজমের সমস্যা, শরিরের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা থেকে স্তন ও প্রস্টেট ক্যান্সারের সম্ভাবনা বেড়ে যেতে পারে ।

সমীক্ষায় দেখা গেছে, যেসব মানুষ রাতে গড়ে ৬ ঘণ্টা করে ঘুমোন, তাদের কোমরের মাপ যারা রাতে নয় ঘণ্টা করে ঘুমোন তাঁদের থেকে তিন সেন্টিমিটারের উপর বেশি।

ব্রেকিংনিউজ/নিহে