চোখ ধাঁধানো দুবাই

মতিউর রহমান মুন্না সংযুক্ত আরব আমিরাতের জনপ্রিয় ও প্রধান আকর্ষণীয় রাজ্যের নাম দুবাই। বিলাসবহুল জীবনযাপন, চোখ ধাঁধানো রঙিন আলোকরশ্মি, আকাশচুম্বি অট্রালিকা, হোটেল, কৃত্রিম দ্বীপপুঞ্জসহ নানা কারণে দুবাই ভ্রমণ-প্রিয়দের পছন্দের শীর্ষে। পর্যটকদের জন্য দুবাই অত্যন্ত আকর্ষণীয় শহর। মরুভূমির দেশ দুবাইয়ে রয়েছে উপভোগ করার মতো অনেক কিছু। পৃথিবীর অন্যতম অভিজাত এয়ারলাইন্স এমিরেটসের কারণে দুবাইয়ে যাওয়া হয় প্রতিদিন লাখো বিমানযাত্রীর। বুর্জ আল খলিফা, বুর্জ আল আরব, দুবাই মল, পাম আইল্যান্ড, স্কাইডাইভিং, মরুভূমিতে সাফারি, মিরাকল গার্ডেন, কোরআন পার্ক, প্রমিজ ব্রিজসহ অনেকগুলো আকর্ষণীয় জায়গা ও অ্যাডভেঞ্চারের জন্য বিখ্যাত এ শহরটি। অতীতে দুবাইয়ে ভ্রমণ ভিসার অপব্যবহারের জন্য সবধরনের ভিসা বন্ধ করে রেখেছিল আরব আমিরাত। ২০১২ সালে বন্ধ হবার পর এ বছর আবার ভিজিট ভিসা দেয়া শুরু করেছে তারা। দুবাই শহরের উত্তরে অবস্থিত শারজাহ আমিরাতের শিল্প ও স্থাপত্যের কেন্দ্রস্থল। এছাড়াও দুবাইয়ের পূর্ব দিকে রয়েছে ‘হাজার পর্বত’, যেখান থেকে আমিরাতের প্রধান শহরগুলির চাকচিক্যের বাইরে গিয়ে একটু প্রাকৃতিক মেজাজে সময় কাটাতে পারবেন। স্কাইড্রাইভ : পৃথিবীর অনেক দেশেই স্কাইড্রাইভ রয়েছে। কিন্তু ‘দুবাই স্কাইডাইভ’ অন্যদের তুলনায় ব্যতিক্রম। দুবাইতে স্কাইড্রাইভ করতে হলে অনলাইনে ২-৩দিন আগে বুকিং দিতে হয়। স্কাইড্রাইভ করা মানে আপনি পৃথিবীর এক অন্যরকম সুন্দর্য উপভোগ করার সাক্ষী হলেন। প্লেন থেকে জাম্প দেওয়ার পর ‘পাম জুমাইরাহর’ উপর থেমে দুবাই শহরের যে ভিউ আপনি দেখতে পাবেন তা এক কথায় অসাধারণ। মুভি থিয়েটার : দুবাইতে বিভিন্ন সমুদ্র বিচের পাশেই এবং সুন্দর পরিবেশে সাজানো গোছানো অনেক মুভি থিয়েটার রয়েছে। সে দেশের মুভি থিয়েটারগুলো এতবেশি সুন্দর, ছবি উপভোগ করার থেকেও সিনেমাহলটি বেশি উপভোগ্য লাগবে আপনার কাছে। অবশ্যই দুবাই গেলে এই মুভি থিয়েটারগুলোতে ছবি দেখবেন। সমুদ্র বিচ: দুবাইতে অনেক সুন্দর কিছু সমুদ্র বিচ রয়েছে। যা একেকটি দেখতে আমাদের স্বপ্নের মতো। একটি বিচ থেকে দেখা যায়, ‘পাম জুমাইরাহ’, আরেকটি থেকে দেখা যায় বিশ্বের সবচেয়ে বেশি স্টার সমৃদ্ধ ও বিলাসবহুল হোটেল ‘বুর্জ আল আরব জুমাইরাহ’। এছাড়াও রয়েছে দেখার মতো অরো অনেক সমুদ্র বিচ। দুবাই শহরে ‘দুবাই মেরিনা’ নামে একটি সমুদ্র বিচ রয়েছে যা দেশটির সবচেয়ে সুন্দর সমুদ্র বিচ এবং এটি ‘পাম জুমাইরাহ’ এর পাশেই। এখানে প্রতিদিন অনেক পর্যটক ভিড় করে এই অপরূপ সুন্দর্য দেখার জন্য। এই এলাকার বড় ও অকর্ষণীয় সব ভবন, মেরিনার পাশের লেক এবং লেকের উপর চলমান নৌকাগুলো আপনার মন কেড়ে নিতে বাধ্য। মেরিনা লেকের পাশ ধরে হাঁটতে হাঁটতে চলে যেতে পারেন দুবাইয়ের ‘মেরিনা মল’। মেরিনা মল ভবনের তৃতীয় তলায় রয়েছে অনেকগুলো ফুড কোর্ট। কম টাকায় পছন্দের সব মজাদার খাবারের পাশাপাশি উপভোগ করুন চারিপাশের সুন্দর্য। রাতে ‘দুবাই মেরিনা’ বিভিন্ন রং এর আলোতে এক অপরূপ রুপে সাঁজ নেয়। চারদিক আলোয় ফুটে উঠে। পার্ক : আপনি ঘুরে আসতে পারেন ‘আল বারশা পন্ড’ পার্ক থেকে। সেখানে লেক এবং গাছের সমারহে অপরূপ এক সৌন্দর্য উপভোগ করতে পারবেন আপনি। দুবাইতে এত বিশাল সব দালানের মাঝে গাছ খুঁজে পাওয়া খুব মুশকিল। কিন্তু এখানে তার ভিন্ন একটি রূপ রয়েছে। এমন সুন্দর্য দেখে আপনার মনে হতেই পারে, কীভাবে এই পার্কটি এত সুন্দর করে তৈরি করা হলো! চলবে… এমআরএম/এএসএম

চোখ ধাঁধানো দুবাই

মতিউর রহমান মুন্না

সংযুক্ত আরব আমিরাতের জনপ্রিয় ও প্রধান আকর্ষণীয় রাজ্যের নাম দুবাই। বিলাসবহুল জীবনযাপন, চোখ ধাঁধানো রঙিন আলোকরশ্মি, আকাশচুম্বি অট্রালিকা, হোটেল, কৃত্রিম দ্বীপপুঞ্জসহ নানা কারণে দুবাই ভ্রমণ-প্রিয়দের পছন্দের শীর্ষে।

পর্যটকদের জন্য দুবাই অত্যন্ত আকর্ষণীয় শহর। মরুভূমির দেশ দুবাইয়ে রয়েছে উপভোগ করার মতো অনেক কিছু। পৃথিবীর অন্যতম অভিজাত এয়ারলাইন্স এমিরেটসের কারণে দুবাইয়ে যাওয়া হয় প্রতিদিন লাখো বিমানযাত্রীর।

jagonews24

বুর্জ আল খলিফা, বুর্জ আল আরব, দুবাই মল, পাম আইল্যান্ড, স্কাইডাইভিং, মরুভূমিতে সাফারি, মিরাকল গার্ডেন, কোরআন পার্ক, প্রমিজ ব্রিজসহ অনেকগুলো আকর্ষণীয় জায়গা ও অ্যাডভেঞ্চারের জন্য বিখ্যাত এ শহরটি। অতীতে দুবাইয়ে ভ্রমণ ভিসার অপব্যবহারের জন্য সবধরনের ভিসা বন্ধ করে রেখেছিল আরব আমিরাত। ২০১২ সালে বন্ধ হবার পর এ বছর আবার ভিজিট ভিসা দেয়া শুরু করেছে তারা।

দুবাই শহরের উত্তরে অবস্থিত শারজাহ আমিরাতের শিল্প ও স্থাপত্যের কেন্দ্রস্থল। এছাড়াও দুবাইয়ের পূর্ব দিকে রয়েছে ‘হাজার পর্বত’, যেখান থেকে আমিরাতের প্রধান শহরগুলির চাকচিক্যের বাইরে গিয়ে একটু প্রাকৃতিক মেজাজে সময় কাটাতে পারবেন।

jagonews24

স্কাইড্রাইভ : পৃথিবীর অনেক দেশেই স্কাইড্রাইভ রয়েছে। কিন্তু ‘দুবাই স্কাইডাইভ’ অন্যদের তুলনায় ব্যতিক্রম। দুবাইতে স্কাইড্রাইভ করতে হলে অনলাইনে ২-৩দিন আগে বুকিং দিতে হয়। স্কাইড্রাইভ করা মানে আপনি পৃথিবীর এক অন্যরকম সুন্দর্য উপভোগ করার সাক্ষী হলেন। প্লেন থেকে জাম্প দেওয়ার পর ‘পাম জুমাইরাহর’ উপর থেমে দুবাই শহরের যে ভিউ আপনি দেখতে পাবেন তা এক কথায় অসাধারণ।

মুভি থিয়েটার : দুবাইতে বিভিন্ন সমুদ্র বিচের পাশেই এবং সুন্দর পরিবেশে সাজানো গোছানো অনেক মুভি থিয়েটার রয়েছে। সে দেশের মুভি থিয়েটারগুলো এতবেশি সুন্দর, ছবি উপভোগ করার থেকেও সিনেমাহলটি বেশি উপভোগ্য লাগবে আপনার কাছে। অবশ্যই দুবাই গেলে এই মুভি থিয়েটারগুলোতে ছবি দেখবেন।

jagonews24

সমুদ্র বিচ: দুবাইতে অনেক সুন্দর কিছু সমুদ্র বিচ রয়েছে। যা একেকটি দেখতে আমাদের স্বপ্নের মতো। একটি বিচ থেকে দেখা যায়, ‘পাম জুমাইরাহ’, আরেকটি থেকে দেখা যায় বিশ্বের সবচেয়ে বেশি স্টার সমৃদ্ধ ও বিলাসবহুল হোটেল ‘বুর্জ আল আরব জুমাইরাহ’। এছাড়াও রয়েছে দেখার মতো অরো অনেক সমুদ্র বিচ।

দুবাই শহরে ‘দুবাই মেরিনা’ নামে একটি সমুদ্র বিচ রয়েছে যা দেশটির সবচেয়ে সুন্দর সমুদ্র বিচ এবং এটি ‘পাম জুমাইরাহ’ এর পাশেই। এখানে প্রতিদিন অনেক পর্যটক ভিড় করে এই অপরূপ সুন্দর্য দেখার জন্য। এই এলাকার বড় ও অকর্ষণীয় সব ভবন, মেরিনার পাশের লেক এবং লেকের উপর চলমান নৌকাগুলো আপনার মন কেড়ে নিতে বাধ্য।

jagonews24

মেরিনা লেকের পাশ ধরে হাঁটতে হাঁটতে চলে যেতে পারেন দুবাইয়ের ‘মেরিনা মল’। মেরিনা মল ভবনের তৃতীয় তলায় রয়েছে অনেকগুলো ফুড কোর্ট। কম টাকায় পছন্দের সব মজাদার খাবারের পাশাপাশি উপভোগ করুন চারিপাশের সুন্দর্য। রাতে ‘দুবাই মেরিনা’ বিভিন্ন রং এর আলোতে এক অপরূপ রুপে সাঁজ নেয়। চারদিক আলোয় ফুটে উঠে।

পার্ক : আপনি ঘুরে আসতে পারেন ‘আল বারশা পন্ড’ পার্ক থেকে। সেখানে লেক এবং গাছের সমারহে অপরূপ এক সৌন্দর্য উপভোগ করতে পারবেন আপনি। দুবাইতে এত বিশাল সব দালানের মাঝে গাছ খুঁজে পাওয়া খুব মুশকিল। কিন্তু এখানে তার ভিন্ন একটি রূপ রয়েছে। এমন সুন্দর্য দেখে আপনার মনে হতেই পারে, কীভাবে এই পার্কটি এত সুন্দর করে তৈরি করা হলো!

চলবে…

এমআরএম/এএসএম