চীনে বাংলাদেশি শিক্ষার্থীদের আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালন

মাতৃভাষা ও মাতৃভূমির প্রতি গভীর শ্রদ্ধা ও দেশপ্রেমের চেতনা বুকে নিয়ে চীনের ঝেজিয়াং প্রদেশে হুঝো শহরে অবস্থিত হুঝো বিশ্ববিদ্যালয়ে শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালিত হয়েছে। বিশ্ববিদ্যালয়ে অধ্যয়নরত বাংলাদেশি শিক্ষার্থীরা দিবসটি উপলক্ষে দিনব্যাপী নানা কর্মসূচির আয়োজন করে। হুঝো বিশ্ববিদ্যালয়ের বাংলাদেশ কমিউনিটি আয়োজিত এই অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক মিষ্টার গাও। শিক্ষার্থীরা প্রভাতফেরি, শহীদ বেদীতে পুষ্পস্তবক অর্পণ এবং ভাষা শহীদদের প্রতি সন্মান প্রদর্শন, মাতৃভাষা এবং ভাষা শহীদদের জীবনী নিয়ে আলোচনা সভা, দেয়ালিকা লেখন এবং প্রদর্শনী, চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতা, অমর একুশে স্মৃতি ক্রিকেট টুর্নামেন্ট এবং পুরষ্কার বিতরণী অনুষ্ঠানসহ নানা কর্মসূচির আয়োজন করে। এদিন সূর্যোদয়ের সঙ্গে সঙ্গে ফুলের তোড়া নিয়ে শহীদ বেদীতে আসতে থাকেন হুঝো বিশ্ববিদ্যালয়ে অধ্যয়নরত বাংলাদেশি শিক্ষার্থীরা। তারা ব্যানারা হাতে নিয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন স্থান পদচারনা করেন। সকাল ৭টায় শহীদ বেদীতে পুস্পস্তবক অর্পণ করে শ্রদ্ধা নিবেদন করেন। এরপর অনুষ্ঠিত হয় মাতৃভাষা এবং ভাষা শহীদদের জীবনী নিয়ে আলোচনা সভা। আলোচনা সভায় বক্তব্য রাখেন হুঝো বিশ্ববিদ্যালয়ের ইন্টারন্যাশনাল স্টুডেন্ট ইউনিয়নের সভাপতি মোস্তাক আহমেদ নিশাত, বিশ্ববিদ্যালয়ের অফিস সহকারী রায়হান আহমেদ এবং অধ্যয়নরত বাংলাদেশি শিক্ষার্থী শামিম, উত্তম, সাকিব, সাব্বির, জেবি, ফারহান, নোমান প্রমূখ। বক্তারা তাদের আলোচনায় ভাষা শহীদদের ত্যাগের কথা তুলে ধরেন। অনুষ্ঠানের দ্বিতীয় পর্বে ছিল দেয়ালিকা লেখন ও প্রদর্শনী, চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতা এবং অমর একুশে স্মৃতি ক্রিকেট টুর্নামেন্ট। দেয়ালিকা লেখনে প্রথম স্থান অধিকার করেন জাকির হোসেন। দ্বিতীয় হন আফিফ। চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতায় প্রথম স্থান অধিকার করেন লাবণী। আর দ্বিতীয় হন নাইম। বিকেলে ক্রিকেট টুর্নামেন্টের শেষে বিজয়ীদের হাতে পুরস্কার তুলে দেয়ায়। এতে প্রধান অতিথির সমাপনী বক্তব্য মধ্য দিয়ে শেষ হয় দিনব্যাপী কর্মসূচি। এএএইচ

চীনে বাংলাদেশি শিক্ষার্থীদের আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালন

মাতৃভাষা ও মাতৃভূমির প্রতি গভীর শ্রদ্ধা ও দেশপ্রেমের চেতনা বুকে নিয়ে চীনের ঝেজিয়াং প্রদেশে হুঝো শহরে অবস্থিত হুঝো বিশ্ববিদ্যালয়ে শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালিত হয়েছে। বিশ্ববিদ্যালয়ে অধ্যয়নরত বাংলাদেশি শিক্ষার্থীরা দিবসটি উপলক্ষে দিনব্যাপী নানা কর্মসূচির আয়োজন করে।

হুঝো বিশ্ববিদ্যালয়ের বাংলাদেশ কমিউনিটি আয়োজিত এই অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক মিষ্টার গাও। শিক্ষার্থীরা প্রভাতফেরি, শহীদ বেদীতে পুষ্পস্তবক অর্পণ এবং ভাষা শহীদদের প্রতি সন্মান প্রদর্শন, মাতৃভাষা এবং ভাষা শহীদদের জীবনী নিয়ে আলোচনা সভা, দেয়ালিকা লেখন এবং প্রদর্শনী, চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতা, অমর একুশে স্মৃতি ক্রিকেট টুর্নামেন্ট এবং পুরষ্কার বিতরণী অনুষ্ঠানসহ নানা কর্মসূচির আয়োজন করে।

jagonews24.com

এদিন সূর্যোদয়ের সঙ্গে সঙ্গে ফুলের তোড়া নিয়ে শহীদ বেদীতে আসতে থাকেন হুঝো বিশ্ববিদ্যালয়ে অধ্যয়নরত বাংলাদেশি শিক্ষার্থীরা। তারা ব্যানারা হাতে নিয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন স্থান পদচারনা করেন। সকাল ৭টায় শহীদ বেদীতে পুস্পস্তবক অর্পণ করে শ্রদ্ধা নিবেদন করেন।

এরপর অনুষ্ঠিত হয় মাতৃভাষা এবং ভাষা শহীদদের জীবনী নিয়ে আলোচনা সভা। আলোচনা সভায় বক্তব্য রাখেন হুঝো বিশ্ববিদ্যালয়ের ইন্টারন্যাশনাল স্টুডেন্ট ইউনিয়নের সভাপতি মোস্তাক আহমেদ নিশাত, বিশ্ববিদ্যালয়ের অফিস সহকারী রায়হান আহমেদ এবং অধ্যয়নরত বাংলাদেশি শিক্ষার্থী শামিম, উত্তম, সাকিব, সাব্বির, জেবি, ফারহান, নোমান প্রমূখ। বক্তারা তাদের আলোচনায় ভাষা শহীদদের ত্যাগের কথা তুলে ধরেন।

jagonews24.com

অনুষ্ঠানের দ্বিতীয় পর্বে ছিল দেয়ালিকা লেখন ও প্রদর্শনী, চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতা এবং অমর একুশে স্মৃতি ক্রিকেট টুর্নামেন্ট। দেয়ালিকা লেখনে প্রথম স্থান অধিকার করেন জাকির হোসেন। দ্বিতীয় হন আফিফ। চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতায় প্রথম স্থান অধিকার করেন লাবণী। আর দ্বিতীয় হন নাইম।

বিকেলে ক্রিকেট টুর্নামেন্টের শেষে বিজয়ীদের হাতে পুরস্কার তুলে দেয়ায়। এতে প্রধান অতিথির সমাপনী বক্তব্য মধ্য দিয়ে শেষ হয় দিনব্যাপী কর্মসূচি।

এএএইচ