চোর সন্দেহে নির্যাতনে মাদরাসা ছাত্রের মৃত্যু

যশোরের মণিরামপুরে এবার মোবাইল ফোন সেট চোর সন্দেহে নির্যাতনে মামুন হাসান (২২) নামে এক মাদরাসা ছাত্রের মৃত্যু হয়েছে। গতকাল বুধবার রাতে মণিরামপুর হাসপাতালে তার মৃত্যু হয়।

চোর সন্দেহে নির্যাতনে মাদরাসা ছাত্রের মৃত্যু
ছবিঃ সংগৃহীত

মঙ্গলবার দিনগত রাত ১১টা থেকে তিনটা পর্যন্ত প্রায় চার ঘণ্টা হাত-পা বেঁধে মারপিট করা হয় মামুনকে। এরপর স্থানীয় একটি মসজিদের পাশে তাকে ফেলে রাখা হয়।

বুধবার সকালে থানা থেকে পুলিশ নিয়ে মা ছকিনা বেগম মামুনকে উদ্ধার করে মণিরামপুর হাসপাতালে ভর্তি করেন।

মামুন হাসান মণিরামপুর উপজেলার খোজালিপুর এলাকার মশিয়ার গাজীর ছেলে। তিনি মণিরামপুর আলিয়া মাদরাসার আলিম দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্র ছিলেন।

কাশিমনগর ইউপি চেয়ারম্যান জিএম আহাদ আলী বলেন, রাতে আনিছুর মেম্বর আমাকে বিষয়টি জানাই। মোবাইল চুরি করতে গেলে মামুনকে জনগণ মারপিট করে বলে জেনেছি। মামুন কিছুটা উচ্ছৃঙ্খল প্রকৃতির ছিলো। তবে, আমি কখনও ওর বিরুদ্ধে চুরির সালিশ করিনি।

মণিরামপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রফিকুল ইসলাম গতকাল বুধবার রাতে ঘটনাস্থল থেকে বলেন, আমি ঘটনাস্থলে আছি। শুনেছি, মামুনকে মারপিট করা হয়েছে। ফলে তার মৃত্যু হয়েছে। যারা মেরেছে তারা চুরির বিষয়টি বলছে। ঘটনার সঙ্গে জড়িত দুইজনকে আটক করা হয়েছে। অধিকতর তদন্ত চলছে।