ঢাকা-টোকিও ১০ বছর মেয়াদী মাষ্টার প্লান প্রণয়ন

বাংলাদেশের শিল্প, সেবা ও কৃষিসহ বিভিন্নখাতে উৎপাদন বাড়াতে জাপানভিত্তিক এশিয়ান প্রোডাক্টিভিটি অর্গানাইজেশন (এপিও) এবং বাংলাদেশের ন্যাশনাল প্রোডাক্টিভিটি অর্গানাইজেশন (এনপিও) যৌথভাবে ১০ ...

ঢাকা-টোকিও ১০ বছর মেয়াদী মাষ্টার প্লান প্রণয়ন
বাংলাদেশের শিল্প, সেবা ও কৃষিসহ বিভিন্নখাতে উৎপাদন বাড়াতে জাপানভিত্তিক এশিয়ান প্রোডাক্টিভিটি অর্গানাইজেশন (এপিও) এবং বাংলাদেশের ন্যাশনাল প্রোডাক্টিভিটি অর্গানাইজেশন (এনপিও) যৌথভাবে ১০ বছর মেয়াদী বাংলাদেশ ন্যাশনাল প্রোডাক্টিভিটি মাস্টার প্ল্যান ২০২১-৩০ প্রণয়ন করেছে বলে জানিয়েছেন শিল্পমন্ত্রী নূরুল মজিদ মাহমুদ হুমায়ূন।

তিনি বলেন, এ মাস্টার প্ল্যান বাস্তবায়নের মাধ্যমে ২০৩০ সালের মধ্যে বাংলাদেশের সকল খাতের উৎপাদনশীলতা বর্তমান ৩ দশমিক ৮ শতাংশ থেকে ৫ দশমিক ৬ শতাংশ উন্নীত করা হবে। এজন্য খাতভিত্তিক উৎপাদনশীলতা বৃদ্ধির লক্ষ্যে বিশেষজ্ঞদের মাধ্যমে বাংলাদেশে বিভিন্ন খাতের চাহিদা নিরূপণ এবং চাহিদার আলোকে স্বল্প, মধ্য ও দীর্ঘমেয়াদী কর্মপরিকল্পনা বাস্তবায়নের সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়েছে।

জাপানের রাজধানী টোকিওতে এশিয়ান প্রোডাক্টিভিটি অর্গানাইজেশনের (এপিও) ৬০ বছর পূর্তিতে গৃহীত অনুষ্ঠানমালার উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে এক ভিডিও বার্তায় মন্ত্রী একথা বলেন।

শিল্পমন্ত্রী আরও বলেন, মহামারিকালীন ভার্চুয়াল মাধ্যমে এপিও’র উদ্যোগে উৎপাদনশীলতা বিষয়ক আলোচনা, প্রশিক্ষণ, সম্মেলন, কর্মশালাসহ অন্যান্য কর্মসূচি চলমান থাকায় বাংলাদেশসহ অন্যান্য সদস্য দেশসমূহ উৎপাদনশীলতা কার্যক্রম সুষ্ঠুভাবে পরিচালনা করতে পেরেছে। এপিও’র কার্যক্রম দক্ষিণ এশিয়া-প্রশান্ত মহাসাগরীয় অঞ্চলে টেকসই উৎপাদনশীলতা উন্নয়নে অবদান রাখবে বলে তিনি আশা প্রকাশ করেন।

এনপিও’র জেনারেল সেক্রেটারি ড. একেপি মচতান, জাপানের এপিও’র পরিচালক (জাপানের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সহকারী মন্ত্রী এবং মহাপরিচালক) আতসুসি ইউনো এবং ভিয়েতনামের বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি উপমন্ত্রী লি জুয়ান দিনহো অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন।

এছাড়া, ইন্দোনেশিয়ার মানবসম্পদ মন্ত্রী ইদা ফৌজিয়া, কম্বোডিয়ার বিজ্ঞান, প্রযুক্তি ও উদ্ভাবন সিনিয়র মন্ত্রী কিট্টি সিত্থা পেনদিতা চাম প্রাসিধ এবং পাকিস্তানের শিল্প ও উৎপাদন বিভাগের কেন্দ্রীয় মন্ত্রী মুহাম্মদ হাম্মাদ আজহার এপিও’র ৬০ বছর পূর্তিতে অভিনন্দন জানান।

ব্রেকিংনিউজ/বিবি/এসআই