থানা ঘিরে কাদের মির্জার ধর্মঘট, ডিসি-এসপি-ওসিদের প্রত্যাহার দাবি

পূর্বপরিকল্পনা অনুযায়ী আজ আবারও নোয়াখালীর কোম্পানীগঞ্জ থানার সামনে অবস্থান ধর্মঘট পালন করছেন বসুরহাট পৌরসভার মেয়র আব্দুল কাদের মির্জা।  শুক্রবার (১৯ ফেব্রুয়ারি) সকাল ১০টা থেকে দুপুর ...

থানা ঘিরে কাদের মির্জার ধর্মঘট, ডিসি-এসপি-ওসিদের প্রত্যাহার দাবি
পূর্বপরিকল্পনা অনুযায়ী আজ আবারও নোয়াখালীর কোম্পানীগঞ্জ থানার সামনে অবস্থান ধর্মঘট পালন করছেন বসুরহাট পৌরসভার মেয়র আব্দুল কাদের মির্জা। 

শুক্রবার (১৯ ফেব্রুয়ারি) সকাল ১০টা থেকে দুপুর ১২টা পর্যন্ত দ্বিতীয় দিনের মতো দলীয় নেতাকর্মীদের নিয়ে এ ধর্মঘট পালন করেন তিনি।  

নোয়াখালী জেলা প্রশাসক, পুলিশ সুপার ও কোম্পানীগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি), ওসি (তদন্ত)কে প্রত্যাহারের দাবিতে এবং নোয়াখালীর অপরাজনীতি বন্ধের দাবিতে কাদের মির্জার এ কর্মসূচি চলছে।

এর আগে গতকাল বৃহস্পতিবার অর্ধদিবস হরতাল শেষে পুনরায় একই দাবিতে শুক্র ও শনিবার অবস্থান কর্মসূচির ঘোষণা দেন তিনি। 

গেল মঙ্গলবার (১৬ ফেব্রুয়ারি) সন্ধ্যা থেকে থানা ফটকের সামনে সারারাত অবস্থান কর্মসূচি পালন করেন মির্জা। পরদিন বুধবার সকাল ৯টায় সেই কর্মসূচি তিনি স্থগিত করেন।

গতকাল বুধবার কাদের মির্জা তার নেতাকর্মীদের নিয়ে শান্তিপূর্ণভাবে পালন করেন। হরতাল শান্তিপূর্ণ হলেও কোম্পানীগঞ্জ এলাকার সব ধরনের যান চলাচল বন্ধ হয়ে যায়। বিভিন্ন সড়কে গাছের গুঁড়ি ফেলে অবরোধ করেন মির্জার নেতাকর্মীরা। বসুরহাট বাজারে ঝটিকা মিছিলও বের করা হয়। কোথাও কোনও অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটেনি।

এদিকে হরতাল পালন শেষে নেতাকর্মীদের সামনে দেয়া বক্তব্যে কাদের মির্জা বলেন, ‘যে সত্য কথা বলা শুরু করেছি, তা বলে যাবো। যদি বহিষ্কার করা হয়, আমি বঙ্গবন্ধুর কথা বলবো, আওয়ামী লীগ করবো, আমি জননেত্রী শেখ হাসিনার উন্নয়নের কথা বলবো। গ্রেফতার হলে জেলে যাবো, মেরে ফেললে কবরে থাকবো।’

ব্রেকিংনিউজ/এমআর