দর্শনা পৌর নির্বাচনে বিক্ষিপ্ত সংঘর্ষে আওয়ামীলীগ সভাপতি রক্তাক্ত জখম,মতিয়ার রহমান পূনরায় মেয়র নির্বাচিত

চুয়াডাঙ্গার দর্শনা পৌরসভা নির্বাচনে বিক্ষিপ্ত সংঘর্ষে ৩নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগ সভাপতি রক্তাক্ত জখম ও বিক্ষিপ্ত দু একটি সংঘর্ষের ঘটনা ছাড়া মোটামুটি সুষ্ঠু ভাবে ভোট গ্রহন সম্পন্ন হয়েছে।

দর্শনা পৌর নির্বাচনে বিক্ষিপ্ত সংঘর্ষে আওয়ামীলীগ সভাপতি রক্তাক্ত জখম,মতিয়ার রহমান পূনরায় মেয়র নির্বাচিত

পুলিশ জানিয়েছে ঐদিন বেলা সাড়ে বারটার দিকে পৌরসভার ৩ নং ওয়ার্ডের আনোয়ারপুর ভোট কেন্দ্রে দুইজন সরকার সমর্থিত কাউন্সিলর প্রার্থীর মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনায় ওয়ার্ড আওয়ামীলীগ সভাপতি কামাল উদ্দিন সান্টু রক্তাক্ত জখম এবং ঈশ্বরচন্দ্র পুর প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে দুই কাউন্সিলর প্রার্থীর সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষে রিপন মিয়া নামে আরো এক জন আহত হয়েছে। দর্শনা থানার ওসি মো মাহবুবুর রহমান জানান কাউন্সিলর প্রার্থীদের মধ্যে সামান্য কিছু ঘটনা ঘটলেও পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ করা হয়েছে। এ দিকে বি এন পি সমর্থিত ধানেরশীষ প্রতিকের মেয়র প্রার্থী হাবিবুর রহমান বেলা সাড়ে এগারোটার দিকে দর্শনা পুরাতন বাজার মোড়ে অবস্থিত তার নির্বাচনী কার্যালয়ে আয়োজিত সাংবাদিক সম্মেলনে জানিয়েছেন, দর্শনা পৌরসভার মোট ১৬টি ভোট কেন্দ্রের সবকটি থেকে সরকার সমর্থক লোকজন ধানেরশীষ প্রতিকের সকল এজেন্টদের বের করে দেয়ায় এবং ধানেরশীষ প্রতিকের পক্ষের লোকজন ও সমর্থকদের ভয় ভীতি প্রদর্শন ও ভোট কেন্দ্রে প্রবেশে বাধা সৃষ্ঠি করায় আমি এ ভোট বর্জন করলাম। 

এ বিষয়ে চুয়াডাঙ্গা জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা ও রিটার্নিং অফিসার তারেক আহমেমদ এর সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি জানান সুন্দর পরিবেশে ভোট গ্রহণ সম্পন্ন হয়েছে, ধানের শীষ প্রতিকের প্রার্থীর এ অভিযোগ ক্ষতিয়ে দেখা হচ্ছে।
একতরফা ভোটে আওয়ামীলীগ দলীয় প্রার্থী বর্তমান মেয়র মতিয়ার রহমান বেসরকারী ভাবে নির্বাচিত হয়েছেন।
তার প্রাপ্ত ভোট ১৭ হাজার ৭৪২ ভোট। তার নিকটতম প্রতিদ্ব›িদ্ব বিএনপির হাবিবুর রহমান, তিনি পেয়েছেন ১ হাজার ১৯৪ ভোট, স্বতন্ত্র প্রার্থী জামায়াত নেতা আশকার আলী মোবাইল ফোন প্রতিকে পেয়েছেন ৪৩৩ ভোট। অপরদিকে ৯টি সাধারন ওয়ার্ডের কাউন্সিলর পদে বিজয়ীরা হলেন, ১নং ওয়ার্ড হাসান খালেকুজ্জামান  (পূননির্বাচিত), ২নংওয়ার্ড এনামুল কবির, ৩নং ওয়ার্ড সুমন আহমেদ (পূননির্বাচিত), ৪নং ওয়ার্ড মনির সর্দার (পূননির্বাচিত), ৫নং ওয়ার্ড সাইফুল ইসলাম মুকুল, ৬নং ওয়ার্ড রেজাউল ইসলাম(পূননির্বাচিত),৭নং ওয়ার্ড সাবির হোসেন মিকা, ৮নং ওয়ার্ড বিল্লাল হোসেন,৯ নং ওয়ার্ড আশুর উদ্দীন আশু। এছাড়া সংরক্ষিত মহিলা কাউন্সিলর পদে বিজয়ী ৩জন হলেন, ১,২,৩ নং ওয়ার্ড বিলকিস খাতুন, ৪,৫,৭ নং ওয়ার্ড জাহানারা বেগম ও ৬,৮,৯ নং ওয়ার্ড সুরাতন নেছা (পূননির্বাচিত)।
এবারের দর্শনা পৌরসভা নির্বাচনে মোট ভোটার সংখ্যা ছিল ২৭ হাজার ৫২০ জন। পুরুষ ভোটার ১৩ হাজার ৫৭২জন ও নারী ভোটার ১৩ হাজার ৯৪৮ জন। এবারের নির্বাচনে ৯টি ওয়ার্ডে ১৬ টি ভোট কেন্দ্রে ৮২ টি বুথে গোপন ব্যালোটের মাধ্যমে ভোট গ্রহন করা হয়েছে। দর্শনা পৌরসভায় মোট ভোটারের সংখ্যা ২৭ হাজার ৫২০ জন। আজকের নির্বাচনে মোট ১৯ হাজার ৬৫৩ জন ভোটার তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করেছেন। বাতিল হয়েছে ২৯০ ভোট। ফলে বৈধ ভোট হিসেবে গণনা করা হয়েছে ১৯ হাজার ৩৬৩ ভোট। সন্ধ্যার পরে দর্শনা অডিটেরিয়াম কাম কমিউনিটি সেন্টারে দর্শনা পৌর নির্বাচনের কন্ট্রোল রুম থেকে ফলাফল ঘোষনা করেন জেলা নির্বাচন অফিসার তারেক আহমেদ। উপস্থিত ছিলেন উপজেলা নির্বাচন অফিসার ইসাহাক আলী।