প্রকাশ্যে অপরাধ স্বীকার করলে গুনাহ মাফ হবে?

ভুল-শুদ্ধ মিলেই জীবন। জীবনচলার পথে নানা রকমের অপরাধ বা পাপ কাজ করা হয়ে যায়। তা কখনো চেতনে কখনো বা অবচেতনে। সেসব অপরাধের কারণে আমাদের বিবেকবোধ, দায়বদ্ধতা ও পরকালের ভয় সবসময় অনুশোচনায় রাখে। ...

প্রকাশ্যে অপরাধ স্বীকার করলে গুনাহ মাফ হবে?
ভুল-শুদ্ধ মিলেই জীবন। জীবনচলার পথে নানা রকমের অপরাধ বা পাপ কাজ করা হয়ে যায়। তা কখনো চেতনে কখনো বা অবচেতনে। সেসব অপরাধের কারণে আমাদের বিবেকবোধ, দায়বদ্ধতা ও পরকালের ভয় সবসময় অনুশোচনায় রাখে। ভেতরে ভেতরে অস্থির হয়ে অপরাধ মোচনের জন্য।

মানুষরা সাধারণত অপরাধ লুকিয়ে রাখতে পছন্দ করে। তবে কিছু মানুষ আছে যারা অপরাধ করে সবার কাছে প্রকাশ করে। ভুল বা অজ্ঞতাবশত যদি সে এটা করে থাকে, পরম করুণাময় কি তাকে ক্ষমা করবেন?

হ্যাঁ, কোনো ব্যক্তি অপরাধ করার পর যদি মানুষের কাছে প্রকাশ করে নিজের অহংকার দেখানোর জন্য, এই কাজটি আল্লাহর কাছে অত্যন্ত অপছন্দনীয়। এই ধরনের ব্যক্তি যদি পরবর্তীতে তার ভুল বুঝতে পেরে আল্লাহর কাছে ক্ষমা চান, তাহলে আল্লাহ তাকে ক্ষমা করে দেবেন। 

তবে আল্লাহর দরবারে ভুল স্বীকার করে ভবিষ্যতে এমন ভুল প্রকাশিত না হওয়ার দৃঢ় অঙ্গীকার করা উচিত। সেই সঙ্গে কারো হক-পাওনা বিনষ্ট করে থাকলে, তার ক্ষতিপূরণ দেওয়া। তবে প্রকাশ্য গুনাহের জন্য অবশ্যই প্রকাশ্যে তাওবা করতে হবে।

রাসুল (সা.) বলেছেন, তওবা তার পূর্ববর্তী যত গুনাহের কাজ আছে সবগুলোকে মুছে দেয়। তওবা যদি কেউ করে থাকে, তাহলে আল্লাহ অবশ্যই এই ধরনের ব্যক্তিকে ক্ষমা করে দেবেন। কোনো বান্দা যদি একেবারে মন থেকে আন্তরিকতার সঙ্গে তওবা করে থাকেন, তাহলে আল্লাহ সেই ব্যক্তি যে অপরাধ করে প্রকাশ করে ঘুরে বেড়ায়। এই ধরনের ব্যক্তিকে ক্ষমা করে দেবেন।

ব্রেকিংনিউজ/নিহে​