ববি শিক্ষার্থীদের ওপর হামলার প্রতিবাদে ঢাবিতে মানববন্ধন

বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয়ের (ববি) শিক্ষার্থীদের ওপর পরিবহন শ্রমিকদের হামলার প্রতিবাদ ও জড়িতদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবিতে মানববন্ধন করেছেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) শিক্ষার্থীরা। বৃহস্পতিবার (১৮ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে বিশ্ববিদ্যালয়ের সন্ত্রাসবিরোধী রাজু ভাস্কর্যের পাদদেশে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাধারণ শিক্ষার্থীদের ব্যানারে এ মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়। মানববন্ধন সঞ্চালনা করেন বিশ্ববিদ্যালয়ের তৃতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী মোয়াজ্জেম হোসেন। এতে বক্তব্য রাখেন ছাত্র অধিকার পরিষদ ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় শাখার সভাপতি বিন ইয়ামিন মোল্লা, ছাত্র অধিকার পরিষদের যুগ্ম আহ্বায়ক মশিউর রহমান, ছাত্র অধিকার পরিষদ যুগ্ম আহ্বায়ক সোহরাব হোসেন, সানাউল্লাহ, মাহফুজুর রহমান খান। বাংলাদেশ ছাত্র অধিকার পরিষদ ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় শাখার সভাপতি বিন ইয়ামিন মোল্লা বলেন, নিরাপদ সড়ক আন্দোলনে ছাত্রদের ওপর হামলা করতে শ্রমিক সন্ত্রাসীদের লেলিয়ে দেয়া হয়েছিল। ছাত্রদের মুখে আলকাতরা মেখে দেয়া হয়েছিল। আমরা দেখেছি শাহজাহান খান একজন শিক্ষার্থী মারা যাওয়ায় অট্টহাসি হেসেছিলেন। হামলাকারী শ্রমিকরা শাহজাহান খানের লোক উল্লেখ করে ছাত্র অধিকার পরিষদের কেন্দ্রীয় যুগ্ম আহ্বায়ক মশিউর রহমান বলেন, শ্রমিকদের পেছনে রয়েছেন শাহজাহান খান, পঙ্কজ দেবনাথ, মশিউর রহমান রাঙ্গা। শাহজাহান খানের নেতৃত্বেই ২০১৩-১৪ সালে দেশের পরিবহন সেক্টরকে বন্ধ করে দেয়া হয়েছিল, অচল করে দেয়া হয়েছিল। ২০১৮ সালে যখন ছাত্ররা নিরাপদ সড়ক আন্দোলন করছিল সেই আন্দোলনেও শাহজাহান খানের নেতৃত্বে হামলা করা হয়েছিল বলে তিনি মন্তব্য করেন। আল সাদী/এমএসএইচ/এমএস

ববি শিক্ষার্থীদের ওপর হামলার প্রতিবাদে ঢাবিতে মানববন্ধন

বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয়ের (ববি) শিক্ষার্থীদের ওপর পরিবহন শ্রমিকদের হামলার প্রতিবাদ ও জড়িতদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবিতে মানববন্ধন করেছেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) শিক্ষার্থীরা।

বৃহস্পতিবার (১৮ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে বিশ্ববিদ্যালয়ের সন্ত্রাসবিরোধী রাজু ভাস্কর্যের পাদদেশে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাধারণ শিক্ষার্থীদের ব্যানারে এ মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়।

মানববন্ধন সঞ্চালনা করেন বিশ্ববিদ্যালয়ের তৃতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী মোয়াজ্জেম হোসেন। এতে বক্তব্য রাখেন ছাত্র অধিকার পরিষদ ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় শাখার সভাপতি বিন ইয়ামিন মোল্লা, ছাত্র অধিকার পরিষদের যুগ্ম আহ্বায়ক মশিউর রহমান, ছাত্র অধিকার পরিষদ যুগ্ম আহ্বায়ক সোহরাব হোসেন, সানাউল্লাহ, মাহফুজুর রহমান খান।

বাংলাদেশ ছাত্র অধিকার পরিষদ ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় শাখার সভাপতি বিন ইয়ামিন মোল্লা বলেন, নিরাপদ সড়ক আন্দোলনে ছাত্রদের ওপর হামলা করতে শ্রমিক সন্ত্রাসীদের লেলিয়ে দেয়া হয়েছিল। ছাত্রদের মুখে আলকাতরা মেখে দেয়া হয়েছিল। আমরা দেখেছি শাহজাহান খান একজন শিক্ষার্থী মারা যাওয়ায় অট্টহাসি হেসেছিলেন।

হামলাকারী শ্রমিকরা শাহজাহান খানের লোক উল্লেখ করে ছাত্র অধিকার পরিষদের কেন্দ্রীয় যুগ্ম আহ্বায়ক মশিউর রহমান বলেন, শ্রমিকদের পেছনে রয়েছেন শাহজাহান খান, পঙ্কজ দেবনাথ, মশিউর রহমান রাঙ্গা। শাহজাহান খানের নেতৃত্বেই ২০১৩-১৪ সালে দেশের পরিবহন সেক্টরকে বন্ধ করে দেয়া হয়েছিল, অচল করে দেয়া হয়েছিল। ২০১৮ সালে যখন ছাত্ররা নিরাপদ সড়ক আন্দোলন করছিল সেই আন্দোলনেও শাহজাহান খানের নেতৃত্বে হামলা করা হয়েছিল বলে তিনি মন্তব্য করেন।

আল সাদী/এমএসএইচ/এমএস