ভারতের ১০ দামি তারকার ৯ জনই বলিউডের

২০২০ সালের পারফরমেন্স ও আয়ের নিরিক্ষে ভারতের সেরা ১০ জন দামি তারকার তালিকা অর্থাৎ ‘সেলিব্রিটি ব্র্যান্ড ভ্যালুয়েশন স্ট্যাডি’ রিপোর্ট প্রকাশ করেছে বিজনেস স্ট্যান্ডার্ড। এই ১০ তারকার মধ্যে নয় জনই বলিউডের অভিনেতা-অভিনেত্রী। যদিও তালিকার প্রথম স্থানটি নিতে পারেননি তাদের কেউই। বিজনেস স্ট্যান্ডার্ডের রিপোর্ট অনুযায়ী, শীর্ষস্থানটি দখলে নিয়েছেন ভারতের জাতীয় ক্রিকেট দলের অধিনায়ক তথা অভিনেত্রী আনুশকা শর্মার

ভারতের ১০ দামি তারকার ৯ জনই বলিউডের

২০২০ সালের পারফরমেন্স ও আয়ের নিরিক্ষে ভারতের সেরা ১০ জন দামি তারকার তালিকা অর্থাৎ ‘সেলিব্রিটি ব্র্যান্ড ভ্যালুয়েশন স্ট্যাডি’ রিপোর্ট প্রকাশ করেছে বিজনেস স্ট্যান্ডার্ড। এই ১০ তারকার মধ্যে নয় জনই বলিউডের অভিনেতা-অভিনেত্রী। যদিও তালিকার প্রথম স্থানটি নিতে পারেননি তাদের কেউই।

বিজনেস স্ট্যান্ডার্ডের রিপোর্ট অনুযায়ী, শীর্ষস্থানটি দখলে নিয়েছেন ভারতের জাতীয় ক্রিকেট দলের অধিনায়ক তথা অভিনেত্রী আনুশকা শর্মার স্বামী বিরাট কোহলি। এই তারকার ব্র্যান্ড ভ্যালু ২৩ কোটি ৭৭ লাখ মার্কিন ডলার। বাকি নয় জন কোহলির ধারে-কাছেও নেই। যদিও তারা সবাই বলিউডের।

তালিকার দুই নম্বরে রয়েছে ‘খিলাড়ি’ খ্যাত অক্ষয় কুমারের নাম। তার ব্র্যান্ড ভ্যালু ১১ কোটি ৮৯ লাখ মার্কিন ডলারে। ২০১৯ সালের তুলনায় যা ১৩ দশমিক ৮ শতাংশ বেড়েছে। ১০ কোটি ২ লাখ মার্কিন ডলার সমমূল্যের ব্র্যান্ড ভ্যালু নিয়ে তৃতীয় স্থানে আছেন অভিনেতা রণবীর সিং।

এদিকে, তালিকার চতুর্থ স্থানে থাকা বলিউডের অন্যতম সেরা কিংবদন্তি শাহরুখ খানের ব্র্যান্ড ভ্যালু মাত্র ৫ কোটি ১১ লাখ মার্কিন ডলার। গত কয়েক বছরে ভালো কোনো সিনেমা উপহার না দেওয়া এবং কাজও অনেক কম করায় কিং খানের মতো একজন তারকাকে চতুর্থ স্থানে নামিয়ে এনেছে বলে মত ফিল্ম বিশ্লেষকদের।

পঞ্চম স্থানে রয়েছেন দীপিকা পাড়ুকোন। নারী তারকাদের মধ্যে তার ব্র্যান্ড ভ্যালুই সবচেয়ে বেশি। সেই পরিমাণটা ৫ কোটি ৪ লাখ মার্কিন ডলার। এরপর ছয় নম্বরেও একজন নারী তারকা। তিনি আর কেউ নন, হালের অন্যতম সেনসেশন আলিয়া ভাট। মহেশ ভাট-কন্যার ব্র্যান্ড ভ্যালু ৪ কোটি ৮০ লাখ মার্কিন ডলার।

এছাড়া তালিকার সাত নম্বরে রয়েছেন আয়ুষ্মান খুরানা, আট নম্বরে সালমান খান, নয় নম্বরে অমিতাভ বচ্চন এবং দশ নম্বরে রয়েছেন হৃত্বিক রোশন।

ব্র্যান্ড অ্যান্ডোর্সমেন্টের ক্ষেত্রে এই তারকারাই মাতিয়েছেন করোনার বছর ২০২০ সাল। চলতি বছরেও তাদের এগিয়ে থাকার সম্ভাবনা সবচেয়ে বেশি। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমেও তাদের গ্রহণযোগ্যতা শীর্ষে। পাশাপাশি ‘আদর্শ ইমেজ’ তৈরির ক্ষেত্রেও এগিয়ে আছেন এই তারকারা।