মোংলা বন্দরে বিদেশী জাহাজ থেকে পাচারকৃত বিদেশি মদসহ ১টি ট্রলার আটক করেছে কোস্ট গার্ড

মোংলা বন্দরের ১ নম্বর জেটি এলাকা থেকে বিদেশী মদসহ একটি ট্রলার জব্দ করেছে কোস্ট গার্ড।

মোংলা বন্দরে বিদেশী জাহাজ থেকে পাচারকৃত বিদেশি মদসহ ১টি ট্রলার আটক করেছে কোস্ট গার্ড
মোংলা বন্দরে বিদেশী জাহাজ থেকে পাচারকৃত বিদেশি মদসহ ১টি ট্রলার আটক করেছে কোস্ট গার্ড

 আজ ১৯ ফেব্রুয়ারি শুক্রবার দুপুর আড়াইটার দিকে ওই এলাকায় কোস্ট গার্ডের উপস্থিতি টের পেয়ে পালিয়ে যায় পাচারকারী ও বোট মালিক বেল্লাল ওরফে খোমিনী বেল্লালসহ তার সহযোগীরা। বেল্লাল পৌর শহরের সামছুর রহমান রোড এলাকায় ভাড়াটিয়া বাসিন্দা হিসেবে বসবাস করে আসছেন। তিনি নোয়াখালীর মৃত: আজিজ ফোরম্যানের ছেলে। 


কোস্ট গার্ড পশ্চিম জোন’র (মোংলা) গোয়েন্দা কর্মকর্তা লে: এম মাজহারুল হক জানান, মোংলা বন্দরে অবস্থানরত বিদেশী বাণিজ্যিক জাহাজ থেকে বিদেশী মদ (হুইচকি) জালিবোটে (নৌযান) পাচার করে এনে বোটটি ১ নম্বর জেটি এলাকায় রাখা হয়েছে এমন গোপন সংবাদের ভিত্তিতে শুক্রবার দুপুরে ওই এলাকায় অভিযান চালায় কোস্ট গার্ড সদস্যরা। কোস্ট গার্ডের উপস্থিতি টের পেয়ে ১ নম্বর জেটিতে থাকা পাচারকারীরা বোটে পাচার করে আনা ৪ কার্টুন মদ তড়িঘড়ি করে নামিয়ে নিয়ে পালিয়ে যায়। পরে অভিযানকারীরা পাচারকারীদের বোটে তল্লাশী চালিয়ে ১৫ বোতল বিদেশী মদ উদ্ধার করে এবং বোটটি জব্দ করে।

উদ্ধারকৃত মদ ও বোট মোংলা থানা পুলিশে হস্তান্তরের কথা জানিয়েছে কোস্ট গার্ড। এ ঘটনায় বিদেশী মদ বহনকারী জালিবোট ও জালিবোট মালিক এবং পাচারকারী বেল্লাল (৪৫) ওরফে খোমিনি বেল্লালসহ তার সহযোগীদের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা হবে বলে জানিয়েছে কোস্ট গার্ড। এ ঘটনার পর থেকে বেল্লাল ও তার সহযোগীরা গাঁ ঢাকা রয়েছে। এদিকে বেল্লালসহ তার সহযোগী পাচারকারী একটি চক্র দীর্ঘদিন ধরে মোংলা বন্দরে আগত বিদেশী জাহাজ থেকে মাদক, জ্বালানী তেল ও অন্যান্য মালামালের কালোবাজারী ব্যবসা করে আসছিল বলে অভিযোগ রয়েছে। এর আগে বিভিন্ন সময়ে বেল্লাল চক্রের পাচারকৃত মালামাল আইনশৃঙ্খলারক্ষাকারী বাহিনীর হাতে আটকও হয়েছে। তারপরও বেল্লাল চক্র মোংলা বন্দরে চোরাচালান কার্যক্রমে সক্রিয় রয়েছেন বলেও অভিযোগ রয়েছে।