রেফারি জালালের ‘বিতর্কিত’ সিদ্ধান্ত নিয়ে মন্তব্য করতে নারাজ ফিফা

বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগে বসুন্ধরা কিংস ও শেখ জামাল ধানমন্ডি ক্লাবের মধ্যকার ম্যাচে রেফারি জালাল উদ্দিনের একটি সিদ্ধান্ত নিয়ে তোলপাড় ফুটবল অঙ্গন। সেই সিদ্ধান্তের ভিডিও পর্যবেক্ষণের জন্য ফিফায় পাঠিয়েছিল বাফুফে। শুক্রবার সন্ধ্যায় বাফুফেকে মেইল করেছে ফিফা। সেখানে বিশ্ব ফুটবলের অভিভাবক সংস্থা স্পষ্ট করেই জানিয়ে দিয়েছে, ‘নীতিগতভাবে রেফারির কোনো সিদ্ধান্ত নিয়ে মন্তব্য করতে পারে না ফিফা।’ গত ১৩ ফেব্রুয়ারি বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে শেখ জামাল ধানমন্ডি ক্লাব ও বসুন্ধরা কিংসের মধ্যকার ম্যাচের ৮৭ মিনিটে দেয়া রেফারি জালাল উদ্দিনের সিদ্ধান্ত নিয়ে আলোচনা ও সমালোচনার ঝড় ওঠে। শেখ জামালের গাম্বিয়ান ফরোয়ার্ড ওমর জোবে বল জালে পাঠালেও তার বিরুদ্ধে ফাউলের বাঁশি বাজিয়েছিলেন রেফারি। বল নিয়ে দ্রুত এগিয়ে যাওয়ার সময় ওমর জোবে কিংসের ডিফেন্ডার তপু বর্মনকে ফাউল করেছিলেন বলে রেফারি গোলটি নেননি। ফাউল ছিল, নাকি গোল ছিল? এই বিতর্ক এড়াতে বাফুফে ভিডিও পাঠিয়েছিল ফিফায়। কিন্তু ফিফা এ বিষয়ে কোনো মন্তব্য করবে না বলে জানিয়ে দিয়েছে বাফুফেকে। এই সিদ্ধান্ত নিয়ে এতটাই সমালোচনা হয় যে, বাফুফে সভাপতি কাজী মো. সালাউদ্দিন রেফারিজ কমিটি ভেঙে দিয়ে নতুন করে কমিটি গঠন করেছেন। আরআই/এমএমআর/জিকেএস

রেফারি জালালের ‘বিতর্কিত’ সিদ্ধান্ত নিয়ে মন্তব্য করতে নারাজ ফিফা

বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগে বসুন্ধরা কিংস ও শেখ জামাল ধানমন্ডি ক্লাবের মধ্যকার ম্যাচে রেফারি জালাল উদ্দিনের একটি সিদ্ধান্ত নিয়ে তোলপাড় ফুটবল অঙ্গন। সেই সিদ্ধান্তের ভিডিও পর্যবেক্ষণের জন্য ফিফায় পাঠিয়েছিল বাফুফে।

শুক্রবার সন্ধ্যায় বাফুফেকে মেইল করেছে ফিফা। সেখানে বিশ্ব ফুটবলের অভিভাবক সংস্থা স্পষ্ট করেই জানিয়ে দিয়েছে, ‘নীতিগতভাবে রেফারির কোনো সিদ্ধান্ত নিয়ে মন্তব্য করতে পারে না ফিফা।’

গত ১৩ ফেব্রুয়ারি বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে শেখ জামাল ধানমন্ডি ক্লাব ও বসুন্ধরা কিংসের মধ্যকার ম্যাচের ৮৭ মিনিটে দেয়া রেফারি জালাল উদ্দিনের সিদ্ধান্ত নিয়ে আলোচনা ও সমালোচনার ঝড় ওঠে।

শেখ জামালের গাম্বিয়ান ফরোয়ার্ড ওমর জোবে বল জালে পাঠালেও তার বিরুদ্ধে ফাউলের বাঁশি বাজিয়েছিলেন রেফারি। বল নিয়ে দ্রুত এগিয়ে যাওয়ার সময় ওমর জোবে কিংসের ডিফেন্ডার তপু বর্মনকে ফাউল করেছিলেন বলে রেফারি গোলটি নেননি।

ফাউল ছিল, নাকি গোল ছিল? এই বিতর্ক এড়াতে বাফুফে ভিডিও পাঠিয়েছিল ফিফায়। কিন্তু ফিফা এ বিষয়ে কোনো মন্তব্য করবে না বলে জানিয়ে দিয়েছে বাফুফেকে।

এই সিদ্ধান্ত নিয়ে এতটাই সমালোচনা হয় যে, বাফুফে সভাপতি কাজী মো. সালাউদ্দিন রেফারিজ কমিটি ভেঙে দিয়ে নতুন করে কমিটি গঠন করেছেন।

আরআই/এমএমআর/জিকেএস