রাজধানীতে বাসায় ঢুকে মা-মেয়েসহ তিনজনকে কুপিয়ে জখম

রাজধানী যাত্রাবাড়ী থানাধীন শনিরআখড়া শেখদী এলাকায় একটি বাসায় ঢুকে মা-মেয়ে সহ তিনজনকে চাপাতি দিয়ে কুপিয়ে জখম করেছে এক দুর্বৃত্ত।

রাজধানীতে বাসায় ঢুকে মা-মেয়েসহ তিনজনকে কুপিয়ে জখম

আহতরা হলেন- মা মোসাম্মৎ ইয়াছমিন আক্তার (৩৫), মেয়ে মাহমুদা মেহেরিন (১৫)। সে নবম শ্রেণীর ছাত্রী ( ব্রাইট স্কুল এন্ড কলেজ. দনিয়া)। এছাড়া প্রতিবেশী রুহুল কুদ্দুস (বাবু) (৪৫)। তিনি একটি হোটেলের ম্যানেজার। রোববার (১৪ ফেব্রুয়ারি) সন্ধ্যা সাড়ে ছয়টার দিকে দুর্ঘটনাটি ঘটে ঘটে। গুরুতর আহত অবস্থায় তাদেরকে উদ্ধার করে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের জরুরী বিভাগ চিকিৎসাধীন রয়েছে।
আহত ইয়াছমিন জানান, পূর্বের পরিচিত পরান নামের এক ব্যক্তি পূর্ব শত্রুতার জের ধরে সন্ধ্যায় বাসায় ঢুকে  প্রথমে মেয়েকে ডান হাতে কোপ দেয়। তার চিৎকারে মা এগিয়ে গেলে তার মাথায় কোপ দেয়। 

এর আগে বাবুকে কোপায়। তিনজনকে উদ্ধার করে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের জরুরী বিভাগে নিয়ে আসা হয়।
তিনি আরো জানান, নোয়াখালী জেলার চৌমুহনী উপজেলার দরবেশপুর গ্রামের মাসুদ কিবরিয়ার স্ত্রী ইয়াছমিন আক্তার। বর্তমানে ২ নং রোডের শনির আখড়া শেখদী যাত্রাবাড়ী ছয়তলা ভবনের পাঁচ তালায় পরিবার নিয়ে থাকতেন। দুই ছেলে এক মেয়ের জননী।

ঢামেক হাসপাতালের পুলিশ ক্যাম্পের ইনচার্জ (পরিদর্শক) মোঃ বাচ্চু মিয়া তিনি জানান, তিনজনই ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে। এদের মধ্যে রুহুল বাবুর অবস্থা আশঙ্কাজনক। বিষয়টি সংশ্লিষ্ট থানাকে অবহিত করা হয়েছে।