শীতকালে মাথা যন্ত্রণা আটকানোর ১০ উপায়!

শীতকাল চলছে। এই সময়ে অনেকেরই ঠাণ্ডা লাগা, মাথা যন্ত্রণা-এই সব লেগে থাকে। যাদের মাথা যন্ত্রণা এমনিতেই হয়, তাদের এই সময় সেই সমস্যা আরও বেড়ে যায়। কখনও তা মাইগ্রেনের জন্য হতে পারে, কখনও সাইনাসের জন্য বা কখনও ঠাণ্ডার জন্য। তাই অনেক সময়ই বাড়ির বড়রা বলে থাকেন, এই সময়ে মাথা ঢাকা দিয়ে রাখতে, গলা ঢাকা দিয়ে রাখতে, তাতে ঠাণ্ডা লেগে যাওয়ার সম্ভাবনা কম থাকে এবং মাথা যন্ত্রণা বা এই ধরনের কিছু হয় না।

শীতকালে মাথা যন্ত্রণা আটকানোর ১০ উপায়!
ছবিঃ সংগৃহীত

কিন্তু আদৌ কি মাথা যন্ত্রণা কমে এই নিয়ম? জেনে নেওয়া যাক যেভাবে শীতে মাথা যন্ত্রণার হাত থেকে মুক্তি পাওয়া যেতে পারে-

১. বাড়ির বড়রা বলে থাকেন, শীতকালে মাথা ঢেকে রাস্তায় বের হতে। তারা সকলে হয়তো বৈজ্ঞানিক ব্যাখ্যা জানেন না কিন্তু তাদের কথাটা ঠিক। এই সময়ে মাথা ও গলা উলের কিছু বা ঠাণ্ডা না ঢুকতে পারে, এমন কিছু দিয়ে ঢাকা রাখলে মাথা যন্ত্রণা কম হতে পারে।

২. গলার ও কাঁধের পেশিকে আরাম দিতে হবে, রিল্যাক্সে থাকতে দিতে হবে, যাতে রক্ত চলাচল শরীরে ঠিক থাকে। যদি কোনও কারণে এই সময় অতিরিক্ত চিন্তিত লাগে নিজেকে, তা হলে এই পেশিগুলির একটু ব্যায়াম বা মাসাজে উপশম মিলতে পারে।

৩. রোজ আট ঘণ্টা ঠিক ভাবে ঘুমোতে হবে। পাশাপাশি, ঘুমানো ও ঘুম থেকে ওঠার একটা নির্দিষ্ট পদ্ধতি মেনে চলতে হবে।

৪. হিটার বা অন্য কিছু দিয়ে ঘর গরম রাখলে ভালো।

৫. দিনে অন্তত দু'বার ভাপ বা স্টিম নিলে সাইনাস পরিষ্কার থাকবে, এতে সাইনাসের যন্ত্রণা হওয়ার সম্ভাবনা কম থাকবে।

৬. যদি সম্ভব হয়, তা হলে ফেস মাসাজার টুল দিয়ে মুখের বিভিন্ন অংশ মাসাজ করলে ভালো লাগতে পারে। পাশাপাশি এটি সাইনাসও পরিষ্কার করে দিতে পারে। ফলে মাথা যন্ত্রণা হয় না।

৭. শীতে একটু গরম জলে স্নান করলে ভালো, এতে পেশি সচল থাকে। কিন্তু মাথায় রাখতে হবে, অতিরিক্ত গরম জলে শরীর খারাপ হতে পারে। ফলে জলের ঠাণ্ডাটা শুধু কাটিয়ে নিতে হবে এবং বেশিক্ষণ গরম জলে স্নান করা চলবে না।

৮. শীতকালে পিপাসা কম পায় অনেকেরই। ফলে জল খাওয়া কমে যায়। এতে শরীরে নানা সমস্যা হতে পারে। জলের অভাবে মাথা যন্ত্রণাও হতে পারে। ফলে মাথায় রাখতে হবে, জল খাওয়া অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ।

৯. হলুদ মেশানো দুধ বা আদা দেওয়া চা, এই ধরনের জিনিস শীতে খেলে, শরীর গরম রাখে ভিতর থেকে। ফলে দ্রুত ঠাণ্ডা লাগার প্রবণতা কমে ও শরীরে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতাও বাড়াতে সাহায্য করে।

১০. যদি এই সব মেনে চলার পরও মাথা যন্ত্রণা আটকানো না যায়, তা হলে অবশ্যই চিকিৎসকের পরামর্শ নিতে হবে। কারও মাইগ্রেন থাকলে, শীতের আগেই চিকিৎসকদের পরামর্শ নিলে ভাল।

সূত্র: নিউজ এইটটিন