সিলেটে সংঘর্ষ ও মারধরের ঘটনায় ৩ মামলা

সিলেট নগরের চৌহাট্টায় অবৈধ মাইক্রোবাস স্ট্যান্ড উচ্ছেদ কেন্দ্র করে পরিবহন শ্রমিক-সিসিকের কর্মকর্তা-কর্মচারীদের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনায় ২৮ জনের নামে থানায় তিনটি মামলা হয়েছে। মামলা তিনটি ...

সিলেটে সংঘর্ষ ও মারধরের ঘটনায় ৩ মামলা
সিলেট নগরের চৌহাট্টায় অবৈধ মাইক্রোবাস স্ট্যান্ড উচ্ছেদ কেন্দ্র করে পরিবহন শ্রমিক-সিসিকের কর্মকর্তা-কর্মচারীদের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনায় ২৮ জনের নামে থানায় তিনটি মামলা হয়েছে।

মামলা তিনটি হলো, অস্ত্রসহ যুবক আটকের ঘটনায় একটি, দায়িত্বরত পুলিশ সদস্যদের উপর হামলার ঘটনা এবং সিলেট সিটি কর্পোরেশনের কাউন্সিলর, কর্মকর্তা-কর্মচারীদের মারধরের ঘটনায় আরেকটি মামলা দায়ের করা হয়েছে। এসব মামলার মধ্যে ১ টি মামলার বাদী সিসিকের উপ-সহকারী প্রকৌশলী দেবপদ রায় আর বাকি ২টি মামলার বাদী পুলিশ।

বৃহস্পতিবার (১৮ ফেব্রুয়ারি) সকালে ব্রেকিংনিউজকে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন সিলেট মহানগর পুলিশের কোতোয়ালী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এস এম আবু ফরহাদ।

তিনি বলেন সিসিকের দায়ের করা মামলায় এজাহারনামীয় আসামি ১০ জন, পুলিশ এসোল্ট মামলায় ১৭ জন আর অস্ত্র আইনে দায়ের করা মামলায় একক আসামি ফয়সল আহমদ ফাহাদ।

এদিকে, আগ্নেয়াস্ত্র সহ আটক সিলেট মহানগর স্বেচ্ছাসেবক লীগের মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক সম্পাদক ফয়সল ওরফে ফাহাদকে (৩৮) অস্ত্র মামলায় গ্রেফতার দেখিয়ে আদালতে পাঠানো বলে জানান ওসি।

এর আগে বুধবার (১৬ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে সিলেট নগরের চৌহাট্টায় ফুটপাত দখল করে অবৈধভাবে গড়ে তোলা স্ট্যান্ড উচ্ছেদ কেন্দ্র করে সিলেট সিটি করপোরেশনের মেয়রসহ কর্মকর্তা-কর্মচারীদের উপর হামলা চালায় বিক্ষুব্ধ মাইক্রোবাস শ্রমিকরা। এরপরই বিক্ষুব্ধ শ্রমিকদের সাথে সিসিক কর্মকর্তা ও কর্মচারীদের সংঘর্ষ বাধে। এ ঘটনায় বেশ কয়েকটি গাড়ি ভাঙচুর করা হয়েছে। এতে কাউন্সিলরসহ উভয় পক্ষের অনন্ত ৮ জন আহত হয়েছেন জানা গেছে। 

এসময় মেয়ের আরিফুল হক চৌধুরীর দিকে বন্দুক তাক করে তেড়ে আসা ফয়সল আহমদ ওরফে ফাহাদ নামের এক যুবক আটক করে পুলিশ। এসময় তার কাছ থেকে একনালা একটি বন্দুক ও ৩ রাউন্ড গুলি উদ্ধার করা হয়েছে।

এদিকে, গাড়ি ভাঙচুর ও শ্রমিকদের উপর হামলার প্রতিবাদে আগামী সোমবার (২২ ফেব্রুয়ারি) থেকে সিলেটে সকল ধরনের পরিবহণ ধর্মঘটের ডাক দিয়েছে পরিবহণ শ্রমিকরা। সিলেট জেলা সড়ক পরিবহণ শ্রমিক ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক আব্দুল মুহিত এ খবর নিশ্চিত করেছেন।

সিলেট সিটি করপোরেশনের জনসংযোগ কর্মকর্তা আব্দুল আলিম শাহ জানান, চৌহাট্টা-আম্বরখানা সড়ক সম্প্রসারণ ও ফুটপাত নির্মাণের কাজ করছে সিলেট সিটি করপোরেশন। চৌহাট্টা এলাকায় সড়কের ফুটপাত দখল করে অবৈধ স্ট্যান্ড তৈরি করেছে কার ও মাইক্রোবাস শ্রমিকরা। সিটি করপোরেশন ও মহানগর পুলিশের পক্ষ থেকে একাধিকার এই স্ট্যান্ড উচ্ছেদ করা হলেও ফের ফুটপাত দখল করে নেন শ্রমিকরা।

বুধবার সকালে সিটি করপোরেশন অবৈধ স্ট্যান্ড সরাতে গেলে উত্তেজিত মাইক্রোবাস শ্রমিকরা সিসিক কর্মকর্তা ও কর্মচারীদের সাথে সংঘর্ষে জড়ায়। পরে পুলিশ এসে ফাঁকা গুলি ছুড়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।

ব্রেকিংনিউজ/এমএইচ