সাদমানের অর্ধশতকের পর ফিরলেন মুমিনুল

ঘরের মাঠে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে দুই ম্যাচ টেস্ট সিরিজের প্রথমটি বুধবার (৩ ফেব্রুয়ারি) চট্টগ্রামের জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে শুরু হয়েছে। টস জিতে প্রথমে ব্যাটিংয়ের সিদ্ধান্ত নেন টাইগার অধিনায়ক অধিনায়ক মুমিনুল হক। এই রিপোর্ট লেখা অবধি টাইগারদের সংগ্রহ, ৫১ ওভারে ৩ উইকেটে ১১৯ রান। উইকেটে আছেন, সাদমান ইসলাম (৫৪) ও মুশফিকুর রহিম (০)। দুই ওপেনার সাদমান ইসলাম ও তামিম ইকবাল মিলে শুরুটা উড়ন্ত করেছিলেন। কিন্তু ইনিংসের ৫ম ওভারে কেমার রোচের করা তৃতীয় বলে বোল্ড হয়ে ড্রেসিংরুমে ফেরেন অভিজ্ঞ ওপেনার তামিম ইকবাল। আউট হওয়ার আগে নামের পাশে ১৫ বলে ৯ রান করেন তামিম। এরপর উইকেটে আসা নাজমুল হোসেন শান্তকে সঙ্গে নিয়ে দৃঢ়তার সঙ্গে উইকেট আগলে রাখেন সাদমান ইসলাম। এই জুটি দলীয় অর্ধশতক এনে দেন ইনিংসের ১৮তম ওভারে। দুর্দান্ত জুটিতে দলকে এগিয়ে নিচ্ছিলেন এই দুই টপ অর্ডার ব্যাটসম্যান। আর ঠিক তখনই ইনিংসের ২৪তম ওভারের ২য় বলে সাদমান-শান্তর ভুল বোঝাবুঝিতে রান আউট হয়ে ড্রেসিংরুমে ফিরতে হয় শান্তকে। ফেরার আগে ৫৮ বলে ২৫ রান করেন নাজমুল হোসেন শান্ত। দলীয় অর্ধশতকপূর্ণের পরেই দুইব্যাটারের ভুল বোঝাবুঝিতে ফিরতে হয় শান্তকে। এরপরে অধিনায়ক মুমিনুলকে সঙ্গে নিয়ে প্রতিরোধ গড়েন সাদমান। টেস্ট মেজাজে খেলতে থাকা সাদমান একাই যেন পণ করেন উইন্ডিজ বোলারদের ক্লান্ত করে ছাড়বেন। ইনিংসের ৪৯তম ওভারের প্রথম বলে বাউন্ডারি হাঁকিয়ে তুলে নেন নিজের দ্বিতীয় টেস্ট অর্ধশতক। নিজের ১২৮তম বলে অর্ধশতকপূর্ণ করেন সাদমান। সাদমান ও মুমিনুলের দুর্দান্ত জুটিটা ক্রমেই বড় হচ্ছিল। এর মধ্যেই সাদমানের ব্যক্তিগত অর্ধশতক আর বাংলাদেশ ছাড়িয়েছিল শতরান। তৃতীয় উইকেটের জুটিটা স্পর্শ করেছিল অর্ধশতক। এরপরেই দারুণ খেলতে থাকা মুমিনুল খেই হারালেন। ওয়ারিক্যানের বলে জন ক্যাম্পবেলের হাতে ক্যাচ দিয়ে ফিরলেন তিনি। দলীয় ১১৯ রানে ফেরার আগে মুমিনুল ৫৮ বলে ২৯ রান করেন। বাংলাদেশ একাদশ: তামিম ইকবাল, সাদমান ইসলাম, নাজমুল হোসেন শান্ত, মুমিনুল হক (অধিনায়ক), মুশফিকুর রহিম, সাকিব আল হাসান, লিটন দাস, মেহেদি হাসান মিরাজ, নাইম হাসান, তাইজুল ইসলাম এবং মোস্তাফিজুর রহমান। ওয়েস্ট ইন্ডিজ একাদশ: ক্রেইগ ব্র্যাথওয়েট (অধিনায়ক), জন ক্যাম্পবেল, ঙ্ক্রুমাহ বোনার, জারমেইন ব্ল্যাকউড, শেন মোসলে, জশুয়া ডা সিলভা, কাইল মায়ার্স, রাকিম কর্নওয়াল, জোমেল ওয়ারিক্যান, কেমার রোচ এবং শ্যানন গ্যাব্রিয়েল।

সাদমানের অর্ধশতকের পর ফিরলেন মুমিনুল

ঘরের মাঠে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে দুই ম্যাচ টেস্ট সিরিজের প্রথমটি বুধবার (৩ ফেব্রুয়ারি) চট্টগ্রামের জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে শুরু হয়েছে। টস জিতে প্রথমে ব্যাটিংয়ের সিদ্ধান্ত নেন টাইগার অধিনায়ক অধিনায়ক মুমিনুল হক।

এই রিপোর্ট লেখা অবধি টাইগারদের সংগ্রহ, ৫১ ওভারে ৩ উইকেটে ১১৯ রান। উইকেটে আছেন, সাদমান ইসলাম (৫৪) ও মুশফিকুর রহিম (০)।

দুই ওপেনার সাদমান ইসলাম ও তামিম ইকবাল মিলে শুরুটা উড়ন্ত করেছিলেন। কিন্তু ইনিংসের ৫ম ওভারে কেমার রোচের করা তৃতীয় বলে বোল্ড হয়ে ড্রেসিংরুমে ফেরেন অভিজ্ঞ ওপেনার তামিম ইকবাল। আউট হওয়ার আগে নামের পাশে ১৫ বলে ৯ রান করেন তামিম।

এরপর উইকেটে আসা নাজমুল হোসেন শান্তকে সঙ্গে নিয়ে দৃঢ়তার সঙ্গে উইকেট আগলে রাখেন সাদমান ইসলাম। এই জুটি দলীয় অর্ধশতক এনে দেন ইনিংসের ১৮তম ওভারে। দুর্দান্ত জুটিতে দলকে এগিয়ে নিচ্ছিলেন এই দুই টপ অর্ডার ব্যাটসম্যান। আর ঠিক তখনই ইনিংসের ২৪তম ওভারের ২য় বলে সাদমান-শান্তর ভুল বোঝাবুঝিতে রান আউট হয়ে ড্রেসিংরুমে ফিরতে হয় শান্তকে। ফেরার আগে ৫৮ বলে ২৫ রান করেন নাজমুল হোসেন শান্ত।

দলীয় অর্ধশতকপূর্ণের পরেই দুইব্যাটারের ভুল বোঝাবুঝিতে ফিরতে হয় শান্তকে। এরপরে অধিনায়ক মুমিনুলকে সঙ্গে নিয়ে প্রতিরোধ গড়েন সাদমান। টেস্ট মেজাজে খেলতে থাকা সাদমান একাই যেন পণ করেন উইন্ডিজ বোলারদের ক্লান্ত করে ছাড়বেন। ইনিংসের ৪৯তম ওভারের প্রথম বলে বাউন্ডারি হাঁকিয়ে তুলে নেন নিজের দ্বিতীয় টেস্ট অর্ধশতক। নিজের ১২৮তম বলে অর্ধশতকপূর্ণ করেন সাদমান।

সাদমান ও মুমিনুলের দুর্দান্ত জুটিটা ক্রমেই বড় হচ্ছিল। এর মধ্যেই সাদমানের ব্যক্তিগত অর্ধশতক আর বাংলাদেশ ছাড়িয়েছিল শতরান। তৃতীয় উইকেটের জুটিটা স্পর্শ করেছিল অর্ধশতক। এরপরেই দারুণ খেলতে থাকা মুমিনুল খেই হারালেন। ওয়ারিক্যানের বলে জন ক্যাম্পবেলের হাতে ক্যাচ দিয়ে ফিরলেন তিনি। দলীয় ১১৯ রানে ফেরার আগে মুমিনুল ৫৮ বলে ২৯ রান করেন।

বাংলাদেশ একাদশ: তামিম ইকবাল, সাদমান ইসলাম, নাজমুল হোসেন শান্ত, মুমিনুল হক (অধিনায়ক), মুশফিকুর রহিম, সাকিব আল হাসান, লিটন দাস, মেহেদি হাসান মিরাজ, নাইম হাসান, তাইজুল ইসলাম এবং মোস্তাফিজুর রহমান।

ওয়েস্ট ইন্ডিজ একাদশ: ক্রেইগ ব্র্যাথওয়েট (অধিনায়ক), জন ক্যাম্পবেল, ঙ্ক্রুমাহ বোনার, জারমেইন ব্ল্যাকউড, শেন মোসলে, জশুয়া ডা সিলভা, কাইল মায়ার্স, রাকিম কর্নওয়াল, জোমেল ওয়ারিক্যান, কেমার রোচ এবং শ্যানন গ্যাব্রিয়েল।