১৫ লাখ ৮৬ হাজারের বেশি মানুষ করোনা টিকা নিয়েছেন

গণহারে কোভিড টিকা প্রয়োগের দশম দিনে কেন্দ্রে কেন্দ্রে উপচেপড়া ভিড়। মানুষের চাপ বাড়ায়, বাড়ছে টিকা নিতে অপেক্ষার প্রহরও। কোনো কোনো কেন্দ্রে ঘণ্টার পর ঘণ্টা অপেক্ষা করতে হচ্ছে টিকা নিতে।

১৫ লাখ ৮৬ হাজারের বেশি মানুষ  করোনা টিকা নিয়েছেন

বুধবার (১৭ ফেব্রুয়ারি) টিকা নিয়েছেন ২ লাখ ২৬ হাজার ৭৫৫ জন। এ পর্যন্ত মোট টিকা নিয়েছেন ১৫ লাখ ৮৬ হাজার ৩৬৮ জন।

অনেক কেন্দ্রে বরাদ্দকৃত টিকার বিপরীতে ছাড়িয়ে গেছে নিবন্ধন কোটা। তাই বন্ধ করে দিতে হয়েছে নতুন কাউকে নিবন্ধনের সুযোগ।

অন্যদিকে, নিবন্ধনের সপ্তাহখানেকের বেশি সময় পেরিয়ে গেলেও এখনো ক্ষুদেবার্তা না পাওয়ার অভিযোগ বিস্তর হচ্ছে দিন দিন। তবে কেন্দ্রের সক্ষমতা অনুযায়ী এসএমএস পাঠানো হচ্ছে জানিয়ে স্বাস্থ্যমন্ত্রী বললেন, নিবন্ধন করলে সবার কাছেই যাবে ক্ষুদেবার্তা।

এদিকে, চলতি মাসের শেষ কিংবা পরের মাসের শুরুতে টিকার দ্বিতীয় চালানে ৫০ লাখ ডোজ আসবে বলে জানান স্বাস্থ্য সচিব।

স্বাস্থ্য সচিব মো. আব্দুল মান্নান বলেন, ‘পরবর্তী চালান আসা বা টিকার জন্য কোনো ধরণের শঙ্কা বা কোনো সন্দেহের অবকাশ নেই। আমরা আশা করছি, এই মাসের শেষের দিকে অথবা আগামি মাসের প্রথম সপ্তাহে পরবর্তী চালান চলে আসবে।’

এদিকে, টিকা নিয়ে বয়সসীমায় আপাতত কোনো পরিবর্তন আসছে না বলে জানান নীতিনির্ধারকরা। আর নতুন সিদ্ধান্ত অনুযায়ী টিকার দ্বিতীয় ডোজ দেয়া হবে ৮ সপ্তাহ ব্যবধানে। যাদের ৪ সপ্তাহ ব্যবধানে সময় দেয়া হবে, তাদের এসএমএসের মাধ্যমে নতুন তারিখ জানিয়ে দেয়া হবে।