পন্টুনের তার ছিঁড়ে নদীতে পড়ে যাওয়া যাত্রীবাহী মাইক্রোবাস উদ্ধার,নিখোঁজ চালক

দৌলতদিয়ায় ঝড়ের কবলে পড়ে পন্টুনের তার ছিঁড়ে নদীতে পড়ে যাওয়া যাত্রীবাহী সেই মাইক্রোবাস উদ্ধার করা হয়েছে। প্রায় তিন ঘণ্টার পর মঙ্গলবার (১১ মে) দুপুর ২টার দিকে মাইক্রোবাসটি উদ্ধার করা হয়। তবে চালক এখনও নিখোঁজ রয়েছেন। উদ্ধার অভিযানে বিআইডব্লিউটিসি র্যাকার, রাজবাড়ী ফায়ার সার্ভিসের টিম ও পাটুরিয়া ডুবুরি দল অংশ নেয়।

পন্টুনের তার ছিঁড়ে নদীতে পড়ে যাওয়া যাত্রীবাহী মাইক্রোবাস উদ্ধার,নিখোঁজ চালক

এর আগে বেলা সাড়ে ১১টার দিকে দৌলতদিয়া ৫নং ফেরিঘাটের পন্টুনের ওপর সাদা রঙের ঢাকা মেট্রো চ-১৪-২৬০৮ (নোহা) মাইক্রোবাস ফেরির জন্য অপেক্ষায় ছিল। হঠাৎ ঝড় শুরু হলে পন্টুনের তার ছিঁড়ে মাইক্রোবাসটি নদীতে ছিটকে পড়ে। 

দৌলতদিয়া নৌপুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ পরিদর্শক আবদুল মোন্নাফ বলেণ, দৌলতদিয়ার ৫ নম্বর ঘাটে ভেড়ানো ইউটিলিটি (ছোট) ফেরি মাধবীলতায় ঢাকাগামী মাইক্রোবাসটি উঠতে যায়। এ সময় কালবৈশাখী ঝড় শুরু হলে ঘাট থেকে পন্টুনের ডান পাশের তার ছিঁড়ে যায়। একই সঙ্গে পন্টুনের বাম পাশের খুঁটি ভেঙে পন্টুনটি পদ্মা নদীতে চলে যায়। এ সময় মাইক্রোবাসটি ফেরিতে ওঠার চেষ্টা করছিল। কিন্তু তার আগেই মাইক্রোবাসটি পেছনের দিকে গেলে সঙ্গে সঙ্গে পন্টুন থেকে সেটি নদীতে চলে যায়।

তিনি আরও বলেন, মাইক্রোবাসটিতে চালকসহ ঢাকাগামী কয়েকজন যাত্রী ছিলেন। তবে তাদের পরিচয় সম্পর্কে জানা যায়নি।

রাজবাড়ী ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স স্টেশনের সহকারী পরিচালক আনোয়ার হোসেন বলেন, খবর পেয়ে ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা উদ্ধার অভিযান শুরু করেন। দীর্ঘচেষ্টায় গাড়িটি উদ্ধার করা হলেও তাতে কাউকে পাওয়া যায়নি। এখন নিখোঁজ চালকের সন্ধানে উদ্ধার অভিযান চলছে।