মুজিবনগর সীমান্ত দিয়ে ভারত থেকে ছয় জনকে পুশব্যাক

মেহেরপুরের মুজিবনগর উপজেলার সীমান্ত থেকে ছয়জন বাংলাদেশীকে পুশব্যাক করেছে ভারতীয় বিএসএফ। আজ রোববার মুজিবনগর এলাকায় কাঁটাতারের বেড়ার গেট খুলে এদেরকে পুশব্যাক করা হয়। ছয়জনের বাড়ি উত্তরবঙ্গের বিভিন্ন জেলায়। এদের বিষয়ে পুলিশ ও বিজিবি খোঁজখবর নিচ্ছেন বলে জানানো হয়।

মুজিবনগর সীমান্ত দিয়ে ভারত থেকে ছয় জনকে পুশব্যাক
মুজিবনগর সীমান্ত দিয়ে ভারত থেকে ছয় জনকে পুশব্যাক

পুশব্যাক করা ব্যক্তিরা হচ্ছেন- চাপাইনবাবগঞ্জের শিবগঞ্জের  বিনোদপুর ইউনিয়নের নতুন উনিশবিঘা গ্রামের আবু সাঈদের ছেলে রুবেল(২৫), সাপাহার উপজেলার কলমিডাঙ্গা গ্রামের ইসলাম আলীর ছেলে সাইফুল(৪৫) ও একই গ্রামের ইসলাম মÐলের ছেলে রমজান আলী(২৮), চাপাইনবাবগঞ্জের হাকিমপুরের হান্নানের ছেলে সাফিক(২৬)সুনামগঞ্জের  বনগা উপজেলার জামাল উদ্দীনের ছেলে নুরুল আমিন(৩৫) ও দিনাজপুর জেলার কোতয়ালী থানা সদরের সাইদুর রহমানের ছেলে রাজু (২৭)। 
প্রবেশকারীদের সুত্রে জানা গেছে, তারা বিভিন্ন সময়ে অবৈধভাবে অনুপ্রবেশ করে ভারতের পুলিশের হাতে আটক হয়। বিভিন্ন মেয়াদে সাজা খেটে তারা সাম্প্রতিক সময়ে মুক্তি পায়। পরে বিএসএফ তাদেরকে বহরমপুর কারা হেফাজতে রাখে। সুযোগমতো শনিবার রাতে মুজিবনগর সীমান্তের কাঁটাতারের বেড়ার গেট খুলে তাদেরকে বাংলাদেশ সীমান্তে ঠেলে দেয়। ওই ছয়জন রাতের আঁধারে মুজিবনগরের কেদারগঞ্জ বাজারে গিয়ে রাজশাহীগামী বাসে উঠে। বাসের চালক ও সুপারইভারজার বিষয়টি টের পেয়ে গাংনী উপজেলার জোড়পুকুরিয়া বাজারে তাদেরক বাস থেকে নামিয়ে দেয়। 
স্থানীয় জনগন চাঁদাতুলে তাদেরকে সড়কপথে নিজনিজ এলাকায় পাঠিয়ে দেন।
বিষয়টি জানতে চাইলে ৬ বিজিবি অধিনায়ক লে. কর্ণেল খালেকুজ্জামান বলেন, বিষয়টি আমাদের অজানা। তাবে আমরা তার নাম ঠিকানা সংগ্রহ করে খোঁজ নিব এবং সীমান্তে নজরদারি বৃদ্ধি করা হবে। 
গাংনী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) বজলুর রহমান  জানান, তাদেরকে খুঁজে বের করার চেষ্টা করছে পুলিশ।