সুন্দরবন ও উপকূল সুরক্ষার দাবীতে দিনব্যাপী গণঅবস্থান কর্মসূচী পালন

জলবায়ু বিপর্যয়ের কবল থেকে সুন্দরবন ও উপকূল সুরক্ষা, পরিবেশ এবং জনবান্ধব উন্নয়নের দাবীতে সুন্দরবনের ঢাংমারী এলাকায় গণঅবস্থান কর্মসূচী পালিত হয়েছে।

 

বুধবার দিনব্যাপী গণঅবস্থান কর্মসূচী চলাকালে সুন্দরবন অঞ্চলের সাংস্কৃতিক ঐতিহ্য লাঠিখেলা, গাজীর গান, বনবিবি নাটক, পটগানসহ নানা ধরণের গ্রামীণ খেলাধুলা অনুষ্ঠিত হয়।বুধবার সকাল ১০ টায় গণঅবস্থান কর্মসূচীর উদ্বোধনী সমাবেশে সভাপতিত্ব করেন বাংলাদেশ পরিবেশ আন্দোলন’র (বাপা) জাতীয় পরিষদ সদস্য, সাবেক মোংলা উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান পশুর রিভার ওয়াটারকিপার মো. নূর আলম শেখ।

 

গণঅবস্থান কর্মসূচীতে প্রধান অতিথির বক্তৃতা করেন বাংলাদেশ পরিবেশ আন্দোলন’র (বাপা) সাধারণ সম্পাদক শরীফ জামিল। এ সময় অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন যুব বাপা নেতা দেওয়ান নুরতাজ আলম, ইউপি সদস্য ফিরোজ আলম খান, ঢাংমারী ডলফিন সংরক্ষণ দলের টিম লিডার পশুর রিভার ওয়াটারকিপার ভলান্টিয়ার ইস্রাফিল বয়াতি, বাপা নেতা কমলা সরকার, মোল্লা আল মামুন, আব্দুর রশিদ হাওলাদার, পশুর রিভার ওয়াটারকিপার ভলান্টিয়ার শেখ রাসেল ও নদীকর্মী হাসিব সরদার।

 

প্রধান অতিথির বক্তৃতায় বাপা’র সাধারণ সম্পাদক শরীফ জামিল বলেন, জলবায়ু পরিবর্তনের কারণে পৃথিবী ঝুঁকির মধ্যে রয়ছে। পৃথিবী উষ্ণায়ণের তাপমাত্রা ১.৫ ডিগ্রি সেন্টিগ্রেড’র নীচে রাখতে হবে। বিশ্ব জলবায়ু সম্মেলন কপ-২৬ সফল না হলে পৃথিবীকে বাঁচানো যাবে না। বেপরোয়া শিল্পায়ন, অধিক মাত্রায় ফসিল ফুয়েল’র ব্যবহার ও প্রাণ-প্রকৃতি বিরোধী উন্নয়ন কর্মকান্ড ফলে সুন্দরবন আজ বিপন্ন এবং উপকূল বিধ্বস্ত। তিনি জলবায়ুর বিপর্যয়ের কবল থেকে সুন্দরবন ও উপকূল সুরক্ষা, পরিবেশ ও জনবান্ধব উন্নয়ন পরিকল্পনার দাবী জানান।