দৌলতপুরে দেশ ব্যাপি উগ্র সাম্প্রদায়িক অপশক্তির নাশকতার প্রতিবাদে মানববন্ধন

কুষ্টিয়া দৌলতপরে মঙ্গলবার সকাল ১১ টার সময় উপজেলা চত্বরে বঙ্গবন্ধু শিক্ষা ও গবেষনা পরিষদ দৌলতপুর শাখার আয়োজনে দেশ ব্যাপি উগ্র সাম্প্রদায়িক অপশক্তির নাশকতা, ঘরবাড়ী ভাঙ্গচুর, লুটপাটের প্রতিবাদে মানববন্ধন হয়েছে।

 

বঙ্গবন্ধু শিক্ষা ও গবেষনা পরিষদ দৌলতপুর উপজেলা শাখার যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক একেএম শাহজালালের সভাপতিত্বে।

 

এবং সাধারণ সম্পাদক আব্দুল্লাহ আল আজম বিকোর পরিচালনায়।
সামপ্রদায়িক সম্প্রীতি রক্ষা, ধর্মান্ধ মৌলবাদীদের অপতৎপরতা বন্ধের দাবি জানিয়ে উক্ত মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন সাংগঠনিক সম্পাদক বঙ্গবন্ধু শিক্ষা ও গবেষণা পরিষদ কেন্দ্রীয় কমিটি ডঃ মোফাজ্জেল হক, জাসদ কেন্দ্রীয় কমিটির জনসংযোগ সম্পাদক শরিফুল কবির স্বপন , কুষ্টিয়া জেলা পূজা উদযাপন কমিটি সাধারণ সম্পাদক এডভোকেট জয়দেব বিশ্বাস , সাধারণ সম্পাদক বঙ্গ বন্ধু শিক্ষা ও গবেষণা পরিষদ কুষ্টিয়া জেলা শাখার সুনীল চক্রবর্তী ,

 

সহ- সভাপতি কুষ্টিয়া জেলা পুজা উদযাপন কমিটির বীর মুক্তিযোদ্ধা রবীন্দ্রনাথ সেন, সভাপতি বাংলাদেশ সমাজতান্ত্রিক দল অধ্যক্ষ রেজাউল হক , সভাপতি ওয়ার্কাস পার্টি কুষ্টিয়া জেলা শাখার ফজলুল হক বুলবুল।

এসময় আর উপস্থিত ছিলেন কুষ্টিয়া জেলা ও উপজেলা পূজা উদযাপন কমিটির নেতাকর্মী, হিন্দু-বৌদ্ধ-খ্রিস্টান ঐক্য পরিষদ দৌলতপুর উপজেলা শাখা নেতাকর্মী সহ বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার মানুষ ।

 

 

এ সময় মোফাজ্জল হক ও আব্দুল্লাহ আল আজম বিকো তাদের বক্তব্যে উল্লেখ করেন ,আমাদের দেশের স্বাধীনতা ঘোষণা হয়েছিল ৪টা স্তম্ভের উপর সেটা হচ্ছে গণতন্ত্র, সমাজতন্ত্র, অসাম্প্রদায়িক বাঙালি জাতীয়তাবাদ ও ধর্মনিরপেক্ষতা। বাংলাদেশে যখন স্বাধীন হয় তার আগ মুহূর্তে ১৪ ই ডিসেম্বর বাংলাদেশে যারা অসাম্প্রদায়িক বীজ বপনের হাতিয়ার ছিলেন। তাদের ধরে নিয়ে গিয়ে় মৌলবাদী সংগঠন গুলো হত্যা করেছিল।১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্ট জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে হত্যা করেছিল এই উদ্দেশ্যে। জাতীয় চার নেতাকে জেলখানার ভিতরে হত্যা করেছিল সাম্প্রদায়িক দেশ সৃষ্টি করার লক্ষ্যে। তারপরে জিয়াউর রহমান বাংলাদেশের ক্ষমতায় এসে বাংলাদেশের সাম্প্রদায়িক বীজ বপন করার লক্ষ্যে ধর্মীয় রাষ্ট্র হিসেবে তিনি ঘোষণা করেন। এই বাংলাদেশের ধর্ম নিয়ে যারা রাজনীতি করে তাদের রাজনীতি করার সুযোগ করে দেন।এখনো তারা থেমে নেই বাংলাদেশ সরকারকে প্রশ্নবিদ্ধ করার লক্ষ্যে ঠিক আগের মতোই তারা তাদের কাজ চালিয়ে যাচ্ছে তাই আমরা চাই এদেরকে শক্ত হাতে দমন করতে।