ভারতে পাচার হওয়া একই পরিবারের শিশুসহ আট নারী-পুরুষকে তিন বছর পর দেশে ফেরৎ

ভারতে পাচার হওয়া একই পরিবারের শিশুসহ আট নারী-পুরুষকে তিন বছর পর হস্তান্তর করেছে ভারতীয় ইমিগ্রেশন পুলিশ। এদের মধ্যে দুইজন পুরুষ, তিনজন নারী ও তিনজন শিশু রয়েছে।

 

বৃহস্পতিবার (১১ নভেম্বর) সন্ধ্যার দিকে ভারত সরকারের দেওয়া বিশেষ ট্রাভেল পারমিটের মাধ্যমে পেট্রাপোল ইমিগ্রেশন পুলিশ বেনাপোল চেকপোস্ট ইমিগ্রেশন পুলিশের কাছে তাদেরকে হস্তান্তর করেন।
ফেরত আসা নারী-পুরুষ ও শিশুরা হলেন, বাগেরহাটের শরণখোলা উপজেলার নীলবুনিয়া গ্রামের মোহাম্মদ শেখ, নুসরাত জাহান, নুর মিয়া শেখ, রহিমা বেগম, জামিলা শেখ, ছেলে রেজাউল শেখ,বাইজিদ ইসলাম ও কাজল শেখ। এরা প্রত্যেকে একই পরিবারের সদস্য।

 

জানা গেছে, অভাবের কারণে দালালের খপ্পরে পড়ে তিন বছর আগে অবৈধ পথে ভারতের গোয়া গিয়েছিলেন তারা। সেখানকার পুলিশ তাদের আটক করে পুলিশ হেডকোয়ার্টারে নিজেদের হেফাজতে রাখে। পরে দু‘দেশে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সঙ্গে যোগাযোগ করে বিশেষ ট্রাভেল পারমিটে তাদের দেশে ফিরিয়ে আনা হয়।

 

বেনাপোল চেকপোস্ট ইমিগ্রেশন পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ রাজু আহম্মেদ একই পরিবারের আটজন নারী-পুরুষ ও শিশু ফেরত আসার বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, তাদের বেনাপোল পোর্ট থানা পুলিশের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে। সেখান থেকে জাস্টিস অ্যান্ড কেয়ার নামে একটি এনজিও সংস্থা নিয়ে পরিবারের কাছে হস্তান্তর করবেন বলে জানান তিনি।

 

জাস্টিস অ্যান্ড কেয়ারের সিনিয়র প্রোগ্রাম অফিসার এবিএম মুহিত হোসেন জানান, ফেরত আসাদের যশোর নিয়ে নিজস্ব শেল্টার হোমে রাখা হবে। পরে পরিবারের কাছে তুলে দেওয়া হবে।