শেষ সময়ের গোলে বিশ্বকাপে স্পেন

রোববার রাতে বিশ্বকাপ বাছাইপর্বের ম্যাচে ছন্নছাড়া এক স্পেনকে দেখা গেলো সুইডেনের বিপক্ষে। তবু বাছাইপর্বের শেষ ম্যাচে ১-০ গোলের জয় নিয়ে মাঠ ছেড়েছে লুইস এনরিকের দল।

এ জয়ের সুবাদে ‘বি’ গ্রুপের আট ম্যাচ শেষে ছয় জয় ও এক ড্রয়ে ১৯ পয়েন্ট নিয়ে কাতার বিশ্বকাপের টিকেট নিশ্চিত করলো স্প্যানিশরা।

 

সুইডেনের বিপক্ষে ম্যাচে নামার আগে স্প্যানিশদের সমীকরণ ছিলো সহজ, কোনোভাবে হার এড়ালেই পাওয়া যাবে বিশ্বকাপের টিকিট। অন্যদিকে অবশ্যই জয় প্রয়োজন ছিলো সুইডিশদের।

মাঠের খেলায় দুই দলকেই দেখা গেলো পুরো ম্যাচে মাঝমাঠে বল রেখে খেলতে। কেউই তেমন আক্রমণে ওঠেনি। কারণ একটি ভুলই যে বিপদ ডেকে আনতে পারে দলের।

প্রথম ৬০ মিনিটে সুইডেন তুলনামূলক বেশি সুযোগ পেলেও বল দখলে এগিয়ে ছিল স্পেন। সুইডেন সুযোগ পেয়েও কাজের কাজ করতে পারেনি। পুরো ম্যাচে জাল বরাবর করে একটিও শট করতে পারেনি দলটি।

 

অন্যদিকে প্রথম থেকেই বল দখলে এগিয়ে ছিল স্পেন। ম্যাচের নবম মিনিটে এগিয়ে যাওয়ার বেশ কাছে গিয়েও ব্যর্থ হয় তারা। ডান দিক দিয়ে আক্রমণে ওঠা পাবলো সারাবিয়ার শট দূরের পোস্টের একটু দূর দিয়ে চলে যায়। কিছুক্ষণ পরে পাল্টা আক্রমণে এমিল ফর্সবার্গের বাঁকানো শটও অল্পের জন্য লক্ষ্যভ্রষ্ট হয় সুইডেনের।

গত ইউরোপিয়ান চ্যাম্পিয়নশিপে দলকে শেষ ষোলোর তোলার পথে চার গোল করা ফর্সবার্গ ৩৯তম মিনিটে আরেকটি দারুণ সুযোগ পান। তবে বাঁ দিক থেকে সতীর্থের বাড়ানো ক্রসে লাইপজিগ মিডফিল্ডারের ভলি দূরের পোস্ট ঘেঁষে বেরিয়ে যায়।

 

দ্বিতীয়ার্ধের দুইদলই খেলার গতি বাড়াতে বেশ কিছু পরিবর্তন করে। তবু গোল পেতে অপেক্ষা করতে হয় ৮৬ মিনিট পর্যন্ত। ম্যাচের একদম শেষ দিকে গিয়ে স্প্যানিশ স্ট্রাইকার আলভারো মোরাতা অসাধারণ এক গোল করে দলকে জয় এনে দেন।

ইউরোপ অঞ্চলের বাছাইয়ে ১০ গ্রুপের শীর্ষ ১০ দল সরাসরি পাবে কাতার বিশ্বকাপের টিকেট। বাছাইয়ের ১০ গ্রুপের রানার্সআপ ও নেশনস লিগের সেরা দুই গ্রুপ জয়ী মিলে ১২ দলের প্লে-অফে ইউরোপ থেকে আরও তিনটি দল সুযোগ পাবে বিশ্বকাপে খেলার।