শীতের শুরুতে হাঁচি-কাশিতে ভুগছেন? ঠান্ডা এড়াতে কী খাবেন

শীতকাল এলেই সাধারণত শরীরে একটা অস্বস্তি তৈরি হয়। আসলে সিজন চেঞ্জে এমনটা হয়, গলায় একটা অস্বস্তি দেখা দেয়। গলা খুসখুসানি, মাথা গা-হাতেও ব্যথা-ব্যথা মনে হয়। সর্দি-কাশি দেখা দেয়। পুষ্টিবিদ তাঁর ইনস্টাগ্রাম হ্যান্ডেলে কিছু ঘরোয়া প্রতিকার শেয়ার করেছেন।

 

বাতাসে এখন ঠান্ডা-ঠান্ডা আমেজ। এই আমেজ বেশ ভালো লাগলেও, পরে কিন্তু ভোগান্তির কারণ হয়ে দাঁড়ায়। সিজিন চেঞ্জের এই ঠান্ডায় সর্দি-কাশি হতে বেশি সময় লাগে না। মরশুম বদলের সময়ে নিজেকে সুস্থ রাখবেন কী ভাবে?

এই সময় নাক বন্ধ হয়ে গেলে শ্বাস নিতে খুব সমস্যা হয়। তাই নেজাল ড্রপ দিতেই পারেন। এতে নাক পরিষ্কার হয়ে যায়। শ্বাস-প্রশ্বাস স্বাভাবিক থাকে। কিন্তু ঠান্ডা লাগলে শরীরের ইমিউনিটি কমে যায়। ফুসফুসও দুর্বল থাকে, ফলে অন্য ব্যাকটিরিয়া সহজেই বাসা বাঁধে। হ্যাঁ, সর্দি-কাশির জন্য আপনি এক বা দুই সপ্তাহ নিয়মিত ওষুধ খেতে পারেন, কিন্তু যদি দেখা যায়, সর্দি-কাশি শুধু ওষুধের সাহায্যে নিরাময় করা যায় না। তাই পুষ্টিবিদ একতা সুদ তার ইনস্টাগ্রাম হ্যান্ডেলে কিছু ঘরোয়া প্রতিকার শেয়ার করেছেন, যেগুলো ঠান্ডা ও সর্দি থেকে মুক্তি পেতে খুবই কার্যকর।

 

হাইড্রেটেড থাকুন

আপনি যখন ঠান্ডায় ভুগছেন, তখন সারাদিন হাইড্রেটেড থাকা খুবই গুরুত্বপূর্ণ। সারাদিন প্রচুর জল পান করুন এবং সম্ভব হলে মধু বা লেবুর সঙ্গে হালকা গরম জল পান করুন। আপনি চাইলে ফলের রসও পান করতে পারেন। নিএই সময়ে, যদি সম্ভব হয়, ক্যাফেইন এবং অ্যালকোহলযুক্ত পানীয় এড়িয়ে চলুন।

 

আদা-রসুন চা পান করুন

-home-remedies-for-cold

সর্দি এবং ফ্লুতে আদা-রসুন চায়ের রেসিপি শেয়ার করেছেন পুষ্টিবিদ। এটি তৈরি করতে লাগবে

  • আদা – ১ টুকরো
  • রসুন – ৩ কোয়া
  • দারচিনি – ১/৪
  • তুলসি পাতা – ৩ বা ৪টি
  • মেথি বীজ – ১ চা চামচ
  • কাঁচা হলুদ – ১ টুকরো
  • জল – ১ লিটার
  • মধু – ১ চা চামচ
  • লেবু – অর্ধেক
  • কি ভাবে এই চা তৈরি করবেন

     

    -home-remedies-for-cold

    • প্রথমে আদা ও রসুন কুঁচি করে নিন।
    • মধু এবং লেবু ছাড়া উপরে উল্লেখিত সব উপকরণ জলে দিয়ে ভালো করে ফুটিয়ে নিন।
    • অল্প আঁচে মিশ্রণটি অর্ধেক হতে দিন এবং ফিল্টার করে কাপে ঢেলে দিন।
    • এবার এতে লেবু ও মধু যোগ করুন।
    • দিনে দু’বার এই চা পান করুন।
    • আপনি এটি একবার তৈরি করে সারা দিন পান করতে পারেন।
    •  

      ​ঠান্ডা থেকে মুক্তি পেতে ঘরোয়া প্রতিকার

      -home-remedies-for-cold

      পুষ্টিবিদ একতা সুদ বলেন, সর্দি-কাশি হলে একটু রোদে থাকলে ঠান্ডায় আরাম পাওয়া যায়। আপনি আরও ভিটামিন-ডি শোষণ করতে সক্ষম হবেন, যা রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়াতে সাহায্য করবে। এ ছাড়া রোদে বসে বিশেষ করে শীতকালে আপনি নিজেকে আগের থেকে অনেক বেশি উদ্যমী অনুভব করতে পারবেন।

       

      ​বিশ্রাম নিন

      পুষ্টিবিদদের মতে, সর্দি-কাশিতে যতটা সম্ভব বিশ্রাম নিন। এর কারণ হল আমাদের শরীরের পুনরুদ্ধার করতে এবং দ্রুত স্বাভাবিক অবস্থায় ফিরে আসার জন্য বিশ্রামের প্রয়োজন। আপনি যত বেশি বিশ্রাম করবেন, সুস্থ হতে তত কম সময় লাগবে।

       

      ​গরম স্যুপ খান

       

      ঠান্ডা হলে গরম বা গরম যেকোনো কিছু পান করলে গলায় দারুণ আরাম পাওয়া যায়। পুষ্টিবিদরা বলেন, সর্দি হলে গরম মরিচ চিকেন বা টমেটোর স্যুপ পান করলে খুব ভালো লাগবে। এটি শ্লেষ্মা অপসারণ করতে সাহায্য করে। রাতে গরম ক্বাথ পান করা ঠান্ডা নিরাময়ের একটি ভাল বিকল্প। এটি আপনাকে পরের দিন দুর্দান্ত অনুভব করে।

       

      তাই সর্দি-কাশি থেকে বাঁচতে এখানে যে ঘরোয়া প্রতিকারের কথা বলা হয়েছে তা আপনাকে উপশম দিতে পারে, তবে সেগুলি সবার জন্য উপযুক্ত নাও হতে পারে। আপনার যদি দীর্ঘকাল ধরে সর্দি থাকে তবে আপনার এই প্রতিকারগুলির উপর নির্ভর করা উচিত নয়, তবে যত তাড়াতাড়ি সম্ভব চিকিৎসকের সঙ্গে যোগাযোগ করুন।