দৌলতপুরে নৌকা প্রার্থীর কর্মীদের উপর সন্ত্রাসি হামলাঃ আহত-৪, গুলি ও হাতবোমা উদ্ধার

কুষ্টিয়ার দৌলতপুরের আদাবাড়িয়া ইউনিয়নে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ মনোনীত নৌকা প্রতীকের চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী মকবুল হোসেনের ছেলের উপর সন্ত্রাসি হামলার ঘটনা ঘটেছে।

 

বুধবার রাত সাড়ে ১০ টার দিকে আদাবাড়িয়া থেকে নির্বাচনি প্রচারনা শেষ করে গরুড়া নতুন পাড়া আসার সময় মাঠের মধ্যে উজ্জলের ইট ভাটা নামক স্থানে হামলার এই ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় চেয়ারম্যান মকবুল হোসেনের ছেলে বুলবুলসহ তার ৪ জন কর্মী আহত হয়েছে। ঘটনাস্থল থেকে পুলিশ ২টা অবিস্ফোরিত হাতবোমা, গুলি এবং গুলির খোসা উদ্ধার করেছে।

 

ঘটনার সময় সেখানে পাঁচ থেকে ছয় রাউন্ড গুলি বর্ষণ করা হয়েছে বলে দাবি করেন নৌকা প্রতিকের সমর্থকরা। এ সময় বুলবুলের সাথে থাকা লোকজনের ডাক চিৎকারে আশেপাশের গ্রাম থেকে এগিয়ে আসা লোকেদের মাধ্যমে বুলবুলকে উদ্ধার করে চিকিৎসার জন্য হাসপাতালে নেয়া হয়েছে। এ বিষয়ে তদন্ত করে প্রশাসনের কাছে সুষ্ঠু বিচার চাই এলাকাবাসী।

 

 

আদাবাড়িয়া ইউনিয়নের নৌকা প্রতিকের চেয়ারম্যান প্রার্থী বর্তমান চেয়ারম্যান মকবুল হোসেন জানান, আগামী ২৮ শে নভেম্বর যে নির্বাচন, সেই নির্বাচনে আমার প্রতিপক্ষ আমার জয় নিশ্চিত জেনে বেসামাল হয়ে পড়েছে। আমার ধারণা সে তার লোকজন দিয়ে আমার ছেলেকে হত্যার উদ্দেশ্যে হামলা চালিয়েছে । আমার ছেলে ও আমার কর্মীরা গুরুতর আহত হয়ে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছে। আমি এই ঘটনার তীব্র নিন্দা ও সুষ্ঠু বিচার চাই।

 

দৌলতপুর থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা নাসির উদ্দিন জানান, আমরা খবর পেয়ে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করি, সেখান থেকে অবিস্ফোরিত দুটি হাতবোমা, চার রাউন্ড গুলি, দুই রাউন্ড গুলির খোসা ও একটি মোটরসাইকেল উদ্ধার করেছি। এ ঘটনায় দৌলতপুর থানায় মামলার প্রস্তুতি চলছে। তদন্ত করে এই ঘটনার সাথে যারা জড়িত তাদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।