চুয়াডাঙ্গা পৌর এলাকায় গভীর রাতে বুকে পিস্তল ঠেকিয়ে ছিনতাই

চুয়াডাঙ্গা পৌর এলাকার গুলশানপাড়ায় ফয়সাল আজাদ সাফি নামে এক বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষার্থীর বুকে পিস্তল ও দেশীয় অস্ত্র রামদা ঠেকিয়ে ল্যাপটপ ও নগদ টাকা ছিনতাইয়ের ঘটনা ঘটেছে। 

 

রোববার (২২ নভেম্বর) দিবাগত রাত সোয়া ২টার দিকে গুলশানপাড়ায় এ ঘটনা ঘটে। এ সময় রিকশাচালক মনোয়ার হোসেনকে মারধর করেছে ছিনতাইকারীরা।

 

ফয়সাল আজাদ সাফি চুয়াডাঙ্গা পৌর এলাকার গুলশানপাড়ার মৃত আজাদুল হকের ছেলে এবং নোয়াখালী প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (নোবিপ্রবি) কম্পিউটার সাইন্স অ্যান্ড টেলিকমিউনিকেশন ইঞ্জিনিয়ারিংয়ের শিক্ষার্থী।

 

ফয়সাল বলেন, রোববার দিবাগত রাত ২টার দিকে ঢাকা থেকে খুলনাগামী আন্তঃনগর চিত্রা এক্সপ্রেস ট্রেনে চুয়াডাঙ্গা রেলওয়ে স্টেশনে পৌঁছাই। পরে স্টেশন থেকে একটি রিকশাযোগে বাড়ির উদ্দেশে রওনা হই। বাড়ির অদূরে আফেন্দির দোকানের নিকট পৌঁছালে অজ্ঞাত দুই ব্যক্তি আমাদের গতিরোধ করে। এ সময় আমার বুকে পিস্তল ও রামদা ঠেকিয়ে ল্যাপটপ ও নগদ তিন হাজার টাকা নিয়ে যায়। প্রতিবাদ করায় রিকশাচালক মনোয়ার হোসেনকে মারধর করে পালিয়ে যায়। তবে আমার নিকটে থাকা মোবাইলফোন তারা নেয়নি।

খবর পেয়ে চুয়াডাঙ্গা সদর থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে পরিদর্শন করে এবং ভুক্তভোগীদের নিকট থেকে বিস্তারিত শোনে।

 

চুয়াডাঙ্গা সদর থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) মোহাব্বত ভুক্তভোগীর বরাত দিয়ে বলেন, খবর পেয়ে আমরা ঘটনাস্থলে এসেছি। অভিযুক্তদের ধরতে অভিযান চলছে।

এদিকে শহরের আবাসিক এলাকায় এমন ঘটনায় স্থানীয়দের মধ্যে আতংক বিরাজ করছে।