আপেল সিডার ভিনেগারের ৮ উপকারিতা

আপেলের রসে ইস্ট ও ব্যাকটেরিয়া মিশিয়ে তৈরি করা হয় আপেল সিডার ভিনেগার। এতে থাকা ব্যাকটেরিয়া শরীরের ক্ষতিকারক ব্যাকটেরিয়াকে ধ্বংস করে। বিশেষজ্ঞরা খাদ্য তালিকায় এই ভিনেগার রাখার পরামর্শ দেন অনেক কারণে। রূপচর্চাতেও এর জুড়ি মেলা ভার।

  • পানির সঙ্গে আপেল সিডার ভিনেগার মিশিয়ে নিয়মিত পান করুন। রক্তে শর্করার পরিমাণ কমে যাবে।
  • ওজন নিয়ন্ত্রণে রাখতে আপেল সিডার ভিনেগার খেতে পারেন।
  • হজমের সমস্যা মেটাতে কার্যকর এই ভিনেগার।
  • কোলেস্টেরলের মাত্রা নিয়ন্ত্রণ করে হৃদরোগ থেকে দূরে রাখে।
  • মুখের দুর্গন্ধ দূর করতে পানির সঙ্গে আপেল সিডার ভিনেগার মিশিয়ে গার্গল করুন।
  • টাইপ ২ ডায়াবেটিস রোগীদের জন্য উপকারী এটি।
  • ভিনেগারমিশ্রিত পানি দিয়ে চুল ধুয়ে ফেলুন। খুশকি দূর হবে। পাশাপাশি চুল হবে ঝলমলে।
  • টোনার হিসেবেও বেশ কার্যকর আপেল সিডার ভিনেগার। ত্বকের জৌলুস বাড়ায় এটি।

 

জেনে নিন
অতিরিক্ত পরিমাণে খাবেন না এই ভিনেগার। এক বা দুই চামচের বেশি না খাওয়াই ভালো। সরাসরি খাবেন না কোনওভাবেই। পানির সঙ্গে মিশিয়ে খান।