চুয়াডাঙ্গায় ভুট্টা ক্ষেতে ছিলেন সাজাপ্রাপ্ত আসামি

চেক প্রতারণা মামলায় ৪ মাসের সাজা হয় আরমানের (৩৬) নামের এক ব্যাক্তির। সেই সাজা থেকে বাঁচতেই ভুট্টা ক্ষেতে লুকিয়ে ছিলেন তিনি। রুপ ধারণ করেন চাষীর ছদ্মবেশও। শেষ রক্ষা হয়নি তার।

 

চুয়াডাঙ্গা সদর থানা পুলিশ তাকে মাঠ থেকেই গ্রেফতার করেছে। বুধবার বিকেলে চুয়াডাঙ্গা সদর উপজেলার কতুবপুর ইউনিয়নের হাসানহাটি এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।গ্রেফতার আরমান চুয়াডাঙ্গা জেলার হাসানহাটিন গ্রামের মৃত আবুল কবিরাজের ছেলে।

 

চুয়াডাঙ্গা সদর থানার ওসি মোহাম্মদ মহসীন বলেন, ‘আরমান একটি চেক প্রতারণা মামলার সাজাপ্রাপ্ত আসামি। গত ৪ ডিসেম্বর চুয়াডাঙ্গা যুগ্ন জেলা ও দায়রা জজ ২য় আদালতে তার ৪ মাস কারাদন্ড এবং ১ লক্ষ ৫০ হাজার টাকা অর্থদন্ড হয়। এরপর থেকেই তিনি পলাতক ছিলেন। গোপন সংবাদের ভিত্তিতে বুধবার বিকেলে হাসানহাটি এলাকায় তার বাসায় অভিযান চালালে তিনি পালিয়ে যান। এরপর পার্শ্ববর্তী একটি ভুট্টা ক্ষেতে গেলে তাকে পাওয়া যায়। এসময় তিনি চাষী সেজে সেখানে লুকিয়ে ছিলেন।
তাকে আদালতে সোপর্দ করা হবে।