বেনাপোল বন্দরে ছিনতাই কালে ভারতীয় ট্রাক ড্রাইভারকে ছুরিকাঘাত

বেনাপোল স্থলবন্দরে ছিনতাইয়ের সময় হরিকেশ (৩৭) নামে এক ভারতীয় ট্রাক ড্রাইভারকে ছুরিকাঘাত করেছে দুই ছিনতাইকারী।বৃহস্পতিবার (০৯ ডিসেম্বর) রাত ৯ টার সময় বেনাপোল স্থলবন্দরের ১৯ নং শেডের পাশে এ ঘটনাটি ঘটে।আহত ট্রাক ড্রাইভার হরিকেশ ভারতের গুজরাটের বাসিন্দা।

 

ড্রাইভার হরিকেশ জানান, আমি আমার ভারতীয় ট্রাকে (নং- NL01  AE8101) শুয়ে ছিলাম। হঠাৎ আমার বাথরুম লাগলে, আমি আমার ট্রাকের দরজা বন্ধ করে বাথরুমে যায়। বাথরুম থেকে এসে দেখি, দুই ছিনতাইকারী আমার ট্রাকের সামনে দাঁড়িয়ে ট্রাকের যন্ত্রাংশ খুলছে। এসময় তাদেরকে বাধা দিলে তারা আমার পিঠে চাকু মেরে পালিয়ে যায়।
পরে, সেখান থেকে আহত ট্রাক ড্রাইভারকে বন্দরের শ্রমিকরা উদ্ধার করে, বডারম্যানদের সহযোগিতায় তাকে স্থানীয় ডাক্তারের কাছে নিয়ে গিয়ে চিকিৎসা সেবা দেয়।

 

বেনাপোল স্টাফ এসোসিয়েশনের সাঃ সম্পাদক সাজেদুর রহমান জানান, ওই ভারতীয় ট্রাক ড্রাইভার বাথরুমে সেরে তার ট্রাকের কাছে আসলে, বাইকে আগত দুই ছিনতাইকারী তার ট্রাকের যন্ত্রাংশ ও টাকা পয়সার জন্য তার উপর ছুরিকাঘাত করে। এসময় হ্যান্ডলিং শ্রমিক ইউনিয়নের সভাপতি রাজু তাকে উদ্ধার করে স্টাফ এসোসিয়েশনের এক বডারম্যানের মোটরসাইকেল তুলে তাকে ডাক্তারের কাছে পাঠায়। ডাক্তার তার পিঠে ৬ টি সেলাই দিয়েছে বলে জানায় সাজেদুর।

 

বডারম্যান সফি বলেন, বন্দরে এতো নিরাপত্তা থাকতেও কিভাবে এ ঘটনা ঘটে। তাহলে নিরাপত্তা কর্মি কিংবা আনসার সদস্যরা কি করে? তারা কি টাকার বিনিময়ে ছিনতাইকারীদেরকে ছিনতাইয়ের সুযোগ করে দেয়। আমরা তো নমুনা বইতে শেড ইনচার্জ কিংবা কাস্টমস অফিসারের সই ছাড়া কোন স্যাম্পলও গোডাউন থেকে বাহিরে বের করতে পারিনা।