বেনাপোল চেকপোষ্ট দিয়ে ভারতে জেল খেটে দেশে ফেরত এসেছে ৩ তরুনী ও ১যুবক

বেনাপোল চেকপোষ্ট দিয়ে ভারত থেকে বিভিন্ন মেয়াদে জেল খেটে দেশে ফেরত এসেছে তিন তরুনী ও এক যুবক। সোমবার সন্ধ্যা সাড়ে ৫ টার সময় ভারতের পেট্রাপোল ইমিগ্রেশন পুলিশ বেনাপোল ইমিগ্রেশন পুলিশের কাছে হস্তান্তর করেন।

 

ফেরত আসারা হলেনঃ- টাংগাইল জেলার রুস্তম আলীর ছেলে মাহবুব আলী, যশোর জেলার জসীম উদ্দিন এর মেয়ে কেয়া আক্তার, বরিশাল জেলার আরব আলীর মেয়ে আছিয়া খাতুন ও কুড়িগ্রাম জেলার নুরুজ্জামান এর মেয়ে কুলসুম খাতুন। এদের সকলের বয়স ১৬ থেকে ২০ বছরের মধ্যে।

 

বেনাপোল ইমিগ্রেশন ওসি মোহাম্মাদ রাজু বলেন, ভাল কাজের আসায় এরা বিভিন্ন সীমান্ত পথে ভারতে যায়। এরপর সেখানে কাজ করার সময় সেদেশের পুলিশের কাছে ধরা পড়ে।

তারপর আদালতের মাধ্যেমে ভারতে হায়াদ্রাবাদের একটি শেল্টার হোমে ছিল। ইমিগ্রেশন এর আনুষ্ঠানিকতা শেষে এদের বেনাপোল পোর্ট থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে।

 

যশোর মহিলা আইনজীবি সমিতির এরিয়া কো-অর্ডিনেটর রেখা বিশ্বাস বলেন, ভারতে এরা বাসা বাড়িতে কাজ করার সময় পুলিশের কাছে আটক হয়।

 

তারা দালালদের খপ্পরে পড়ে সীমান্ত পথে পাসপোর্ট ভিসা বাদে পাড়ি জমায় হায়দ্রাবাদ প্রদেশে। পুলিশের কাছে ধরা পড়ে আদালতের মাধ্যেমে এরা প্রজ্জলা নামে একটি বেসরকারী শেল্টার হোমে প্রায় দুই বছর থাকে।

এরপর দুই দেশের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রনালয় মারফত চিঠি চালাচালির এক পর্যায়ে তারা দেশে আজ ফেরত আসে বিশেষ ট্রাভেল পারমিটের মাধ্যেমে।

 

বেনাপোল পোর্ট থানার এস আই রোকনুজ্জামান বলেন থানার আনুষ্ঠানিকতা শেষে এদের যশোর মহিলা আইন জীবি ও জাষ্টিস এন্ড কেয়ার নামে দুইটি বেসরকারী এনজিওর কাছে হস্তান্তর করা হবে।