ঝিনাইদহ সীমান্তে বিএসএফের গুলিতে বাংলাদেশী যুবক নিহত

ঝিনাইদহের মহেশপুর সীমান্তের ওপারে ভারতীয় অংশে বিএসএফের গুলিতে এক বাংলাদেশি নিহত হয়েছেন বলে অভিযোগ করেছে পরিবার।

 

মিকাইল হোসেন নামের ৩০ বছর বয়সী ওই যুবক মহেশপুর উপজেলার বাঘাডাঙ্গার জিনজিরা পাড়ার রুহুল আমিনের ছেলে।

 

তার মামাতো ভাই মুছা নুর মল্লিক বলেন, কয়েক দিন আগে মিকাইলসহ আরও কয়েকজন সীমান্ত পার হয়ে ভারতে যান গরু আনতে। বৃহস্পতিবার রাতে তারা গরু নিয়ে পশ্চিমবঙ্গের নদীয়া জেলার টেংরাখাল ব্রিজ এলাকা দিয়ে দেশে ফেরার চেষ্টা করছিলেন।

 

এ সময় তারা নদীয়ার শিলবাড়ি বিএসএফের টহলদলের সামনে পড়েন। বিএসএফ সদস্যরা তাদের লক্ষ্য করে গুলি ছোঁড়ে। অন্যরা পালিয়ে এলেও মিকাইল নিখোঁজ ছিলেন।

 

রোববার বিকেলে সীমান্তবর্তী টেংরাখালে মিকাইলের লাশ ভেসে ওঠে। পরে নদীয়া জেলার হাঁসখালী থানা পুলিশ লাশ উদ্ধার করে নিয়ে গেছে বলে আমরা খবর পেয়েছি।
মহেশপুরের নেপা ইউনিয়নের চেয়ারম্যান শামসুল আলম বলেছেন, বিষয়টি তিনি মিকাইলের পরিবারের কাছেই শুনেছেন।

 

নিহতের পরিবার তাদের ভারতীয় অংশের স্বজনদের মাধ্যমে জানতে পেরেছে, গরু নিয়ে ফেরার পথে বিএসএফ মিকাইলসহ অ্যন্যদের গুলি করে। অন্যরা ফিরে এলেও মিকাইল ফিরে আসেনি।
আর ঝিনাইদহে বিজিবির খালিশপুর ৫৮ ব্যাটালিয়নের পরিচালক লেফটেন্যান্ট কর্নেল শাহিন আজাদ বলেছেন, তারা এ বিষয়ে ‘খোঁজ খবর নিচ্ছেন’।