চুয়াডাঙ্গায় পাঁচ দিনে শিশু ওয়ার্ডে ভর্তি ৫৪, মৃত্যু ১

চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালের শিশু ওয়ার্ডে গত পাঁচ দিনে নিউমোনিয়া, শ্বাসকষ্ট, ডায়রিয়া ও জ্বর নিয়ে ৫৪ জন ভর্তি হয়েছে এবং এক শিশুর মৃত্যু হয়েছে। বহির্বিভাগে প্রতিদিন চিকিৎসা নিচ্ছে কয়েকশ শিশু। বিপুল সংখ্যক রোগীর সেবা দিতে হিমশিম খাচ্ছে চিকিৎসক ও নার্সরা।

 

হাসপাতাল সূত্রে জানা গেছে, শনিবার (০৮ জানুয়ারি) রাতে ঠান্ডাজনিত ও শ্বাসকষ্ট নিয়ে শিশু ওয়ার্ডে ভর্তি করা হয় শিশু নাজিফাকে।  রোববার সকাল সাড়ে ৭টার দিকে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়। নাজিফা চুয়াডাঙ্গা পৌর এলাকার সিনেমা হলপাড়ার রোকনের মেয়ে।

 

এদিকে গত পাঁচ দিনে শীতজনিত রোগে আক্রান্ত হয়ে শিশু ওয়ার্ডে ভর্তি হয়েছে ৫৪ জন। এর মধ্যে নিউমোনিয়ায় আক্রান্ত শিশু রয়েছে চারজন। এছাড়া বহির্বিভাগে প্রতিদিন চিকিৎসা নিচ্ছে কয়েকশ শিশু। হাসপাতালে সেবা নিতে আসা এসব শিশুর অধিকাংশই নিউমোনিয়া ও ডায়রিয়ায় আক্রান্ত।

 

চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালের সিনিয়র কনসালটেন্ট শিশু বিশেষজ্ঞ ডা. আসাদুর রহমান মালিক খোকন বলেন, আবহাওয়া পরিবর্তনের সঙ্গে রোগীরও বাড়ছে। বিভিন্ন শ্বাসতন্ত্রজনিত রোগের পাশাপাশি নিউমোনিয়া, ডায়রিয়া আক্রান্ত হয়ে রোগীরা হাসপাতালে আসছে। প্রতিদিন দেড়শর বেশি শিশু বহির্বিভাগে চিকিৎসা নিচ্ছে। এসব রোগ থেকে রক্ষা পেতে শিশুদের ছয় মাস বয়স পর্যন্ত নিয়মিত বুকের দুধ পান করাতে হবে। পরিষ্কার-পরিচ্ছন্নতা বজায় রাখতে হবে। শিশুদের জ্বর, অস্বাভাবিক কাশি ও পাতলা পায়খানা দেখা দিলে দ্রুত চিকিৎসকের পরামর্শ নিতে বলেন তিনি।