চুয়াডাঙ্গার ডিসি ও সিভিল সার্জন করোনায় আক্রান্ত

জেলা প্রশাসক আমিনুল ইসলাম খান (বাঁদিকে) ও সিভিল সার্জন ডা. সাজ্জাৎ হাসান

চুয়াডাঙ্গার নবাগত জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ আমিনুল ইসলাম খান এবং সিভিল সার্জন ডা. সাজ্জাৎ হাসান করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। রোববার (১৬ জানুয়ারি) রাত ৮টার দিকে সিভিল সার্জন নিজেই বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

 

জেলা স্বাস্থ্য বিভাগ সূত্রে জানা যায়, রোববার বিকেলে চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে র‍্যাপিড অ্যান্টিজেন পরীক্ষা করা হলে জেলার শীর্ষ এই দুই কর্মকর্তার করোনা পজিটিভ রিপোর্ট আসে। পরে আবার বিষয়টি নিশ্চিতের জন্য হাসপাতালের আরটি-পিসিআর ল্যাবে নমুনা পাঠানো হয়। সেখানেও তাদের পজিটিভ রিপোর্ট আসে। এরপর থেকেই নিজ নিজ বাসভবনে কোয়ারেন্টাইনে চলে যান তারা।

 

এর আগে ১১ জানুয়ারি সিভিল সার্জন হিসেবে চুয়াডাঙ্গায় যোগদান করেন ডা. সাজ্জাৎ হাসান। এর দুদিন পর বৃহস্পতিবার (১৩ জানুয়ারি) চুয়াডাঙ্গা জেলা প্রশাসক হিসেবে যোগদান করেন মোহাম্মদ আমিনুল ইসলাম খান।

 

চুয়াডাঙ্গা অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) সাজিয়া আফরিন বলেন, স্যার করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। রিপোর্ট পাওয়ার পরই তিনি হোম কোয়েরেন্টাইনে আছেন। তিনি সবার কাছে দোয়া চেয়েছেন। চুয়াডাঙ্গায় আসার পর থেকেই রাত-দিন কাজ করে যাচ্ছিলেন তিনি।

 

চুয়াডাঙ্গা সিভিল সার্জন ডা. সাজ্জাৎ হাসান বলেন, রোববার করোনা পজিটিভ রিপোর্ট পেয়েছি। আল্লাহর রহমতে এখন সুস্থ আছি। রিপোর্ট পাওয়ার পর হোম কোয়ারেন্টাইনে আছি।

 

এর আগে রোববার সকালে জেলা প্রশাসক আমিনুল ইসলাম খান দর্শনা আন্তর্জাতিক চেকপোস্ট পরিদর্শন করেন। এরপর সন্ধ্যায় চুয়াডাঙ্গা চেম্বার ভবনে শীতার্তদের মাঝে কম্বল বিতরণ করেন তিনি।