বিমানের চাকায় চড়ে ইউরোপে পাড়ি!

দীর্ঘ যাত্রায় বিমানের চাকার অংশে লুকিয়ে থাকা এক ব্যক্তিকে জীবিত পেয়েছে নেদারল্যান্ডসের পুলিশ। তারা জানিয়েছে, দক্ষিণ আফ্রিকা থেকে আমস্টারডামের শিফোল বিমানবন্দরে পৌঁছানো প্লেনের চাকার অংশে ওই ব্যক্তিকে পাওয়া যায়।

ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসি জানিয়েছে, দক্ষিণ আফ্রিকার জোহানেসবার্গ থেকে আমস্টারডামে পৌঁছাতে কার্গো প্লেনটির প্রায় ১১ ঘণ্টা সময় লাগে। আর এই যাত্রাপথে এটি কেনিয়ার নাইরোবিতে একবার যাত্রা বিরতি দেয়।

 

প্লেনের দীর্ঘ যাত্রায় চাকার অংশে লুকিয়ে কারো বেঁচে থাকা অস্বাভাবিক ঘটনা। কেননা অতি উচ্চতায় কম অক্সিজেন ও তীব্র ঠাণ্ডায় সেখানে কারো টিকে থাকা কঠিন। আমস্টারডামে পৌঁছানো ওই পুরুষের বয়স ও জাতীয়তা এখনও জানতে পারেনি ডাচ পুলিশ।

 

রয়্যাল ডাচ মিলিটারি পুলিশের মুখপাত্র জোয়ানা হেলমন্ডস বলেন, প্লেনের সামনের চাকার অংশে ওই পুরুষকে জীবিত পাওয়া যায় আর তাকে হাসপাতালে নেওয়া হয়। তার অবস্থা স্থিতিশীল। তিনি বলেন, ‘ওই ব্যক্তির এখনও জীবিত থাকাই খুব অস্বাভাবিক।’

কার্গোলাক্স ইটালিয়ার পণ্য পরিবহনকারী একটি ফ্লাইটে ওই ব্যক্তি লুকিয়ে ইউরোপে পৌঁছায়।

 

ফ্লাইটের তথ্য অনুযায়ী, কার্গোলাক্সের প্লেনটি রবিবার জোহানেসবার্গ থেকে শিফোল পৌঁছানোর পথে নাইরোবিতে থামে। তবে ওই ব্যক্তি জোহানেসবার্গ না নাইরোবি থেকে প্লেনের চাকার অংশে লুকিয়ে পড়েন তা এখনও নিশ্চিত হওয়া যায়নি।