মেহেরপুরের গাংনীতে প্রতিপক্ষের হামলায় একজন নিহত : আহত-১০

মেহেরপুরের গাংনীতে জমি সংক্রান্ত বিরোধের জের ধরে প্রতিপক্ষের ধারালো অস্ত্রাঘাতে নিহত হয়েছেন কৃষক সাদেক আলী(৬০)। আজ শুক্রবার সকালে হোগলবাড়িয়া গ্রামের মাঠে এ ঘটনাটি ঘটে। পুলিশ লাশ ময়না তদন্তের জন্য মেহেরপুর মর্গে পাঠিয়েছে। সাদেক আলী হোগলবাড়িয়া গ্রামের আফিল উদ্দীনের ছেলে।

 

গাংনী থানার ওসি আব্দুর রাজ্জাক জানান, ১৫ বিঘা খাস জমি নিয়ে হোগল বাড়িয়া গ্রামের সাদেক আলী গং ও খাইরুল ইসলাম গংয়ের সংগে বিরোধ চলছিল একযুগ ধরে। এনিয়ে উচ্চ আদালতে মামলা চলমান। গত বুধবার ওই জমিতে সাদেক আলী গং ধানের চারা রোপণ করেন। বৃহষ্পতিবার প্রতিপক্ষ খাইরুল ইসলাম গং ওই জমিতে রোপণকৃত চারা বিনষ্ট করে।

 

আজ শুক্রবার সকালে আবারো ওই জমিতে ধানের চারা রোপণ করতে যান সাদেক আলী গং। এসময় ওৎ পেতে থাকা খাইরুল ও তার লোকজন দেশিয় ধারালো অস্ত্র এবং লাঠি সোটা নিয়ে তাদের উপর হামলা করে। এতে ঘটনাস্থলেই নিহত হন সাদেক আলী। আহত হয় তার সহযোগী আরো ১০ জন। এদের মধ্যে তিনজনের অবস্থা আশঙ্কাজনক হওয়ায় তাদেরকে কুষ্টিয়া মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে। বাকি সাতজনকে স্থানীয়ভাবে চিকিৎসা দেয়া হয়েছে।

 

পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে ছয়টি ধারালো হাসুয়া, একটি হাতুড়ি, দুটি বল্লম ও আটটি বাঁেশর লাঠি উদ্ধার করে। মেহেরপুর পুলিশ সুপার রাফিউল আলম ও অতিরিক্ত পুলিশ সুপার জামিরুল ইসলাম ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন। এ ঘটনায় গাংনী থানায় একটি হত্যা মামলা রুজু করার প্রস্তুতি চলছে।