কলারোয়ায় স্ত্রীকে জবাই করে হত্যা, স্বামী আটক

সাতক্ষীরার কলারোয়ায় স্ত্রীকে জবাই করে হত্যার ঘটনায় আব্দুল আলীম নামের এক ব্যক্তিকে আটক করেছে পুলিশ।

 

মঙ্গলবার (৮ মার্চ) সকাল সাড়ে ১০টার দিকে উপজেলার ইলিশপুর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। পরে বাসে করে পালিয়ে যাওয়ার সময় কাজিরহাট এলাকা থেকে তাকে আটক করা হয়।

নিহতের নাম নাজমা খাতুন (৩৫)। তিনি ইলিশপুর গ্রামের আব্দুল আলীমের স্ত্রী। তার এক ছেলে সন্তান রয়েছে।

 

নিহতের ছেলে বাবু সরদার জানায়, সকাল থেকে আম্মু-আব্বু ঝগড়া করছিল। কী নিয়ে ঝগড়া করছিল সেটি জানি না। সকালে রান্না হয়নি। আমি রুটি কিনে নিয়ে আসি। আব্বুকে বলি, তুমি রুটি খেয়ে কাজে চলে যাও। তখন দাদি আব্বুকে বলেছিলেন, যদি তোর বউকে না মারিস তবে আগের মতো ভাইপোদের দিয়ে মার খাওয়াব। পরে আমি বাড়ি থেকে বেরিয়ে যাই। আম্মু ঘরে শুয়ে ছিলেন। বাইর থেকে আম্মুকে ফোন দিলে তিনি রিসিভ করেননি। বাড়িতে ফিরে এসে আম্মুর জবাই করা মরদেহ দেখতে পাই। দাদির কথা শুনে আম্মুকে মেরে ফেলেছে আব্বু।

 

কলারোয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) নাসিরউদ্দীন মৃধা জানান, পারিবারিক কলহের জেরে স্ত্রীর ঘাড়ে দা দিয়ে ৩-৪টা কোপ দেয় আব্দুল আলীম। তার শরীর থেকে মাথা বিচ্ছিন্ন হয়ে যায়।