বেনাপোল বন্দর দিয়ে ১০ টি প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত ঘোড়া আমদানি

বাংলাদেশ পুলিশের জন্য বেনাপোল স্থলবন্দর দিয়ে ভারত থেকে ১০ টি প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত ঘোড়া আমদানি করা হয়েছে। মঙ্গলবার (২৯ মার্চ) বিকেলে ভারতের পেট্রাপোল বন্দর দিয়ে এসি অ্যাম্বুলেন্সে করে ঘোড়াগুলো বেনাপোল বন্দরে প্রবেশ করে। ঘোড়াগুলো এখন বেনাপোল বন্দরেই রয়েছে।

 

এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন বেনাপোল পোর্ট থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) কামাল হোসেন ভূইয়া।

 

বেনাপোল স্থলবন্দরের উপপরিচালক (ট্রাফিক) মামুন কবীর তরফদার জানান, ঘোড়াগুলো রপ্তানি করেছে ভারতের বিধাতা সাপ্লায়ার। এর মূল্য ১ লাখ হাজার ৬ ডলার, যা বাংলাদেশি মুদ্রায় প্রায় ৮৫ লাখ টাকা। আমদানি করা ঘোড়াগুলো ছাড় করিয়েছেন বেনাপোলের সিঅ্যান্ডএফ এজেন্ট মেসার্স মাধ্যম।

 

বন্দরের উপপরিচালক মামুন কবীর আরও জানান, পুলিশের জন্য আমদানি করা ঘোড়াগুলো দ্রুত খালাসের জন্য সংশ্লিষ্টদের নির্দেশনা দেয়া হয়েছে। বেনাপোল পোর্ট থানা পুলিশ ঘোড়াগুলো রক্ষণাবেক্ষণের তদারকি করছে।

 

মেসার্স মাধ্যম সিএন্ডএফ এজেন্টের প্রতিনিধি সত্ত্বাধিকার সাজেদুর রহমান জানান, ভারতের রাজস্থান থেকে ১০ টি রাইডিং হর্স ( ঘোড়া) কিনেছে বাংলাদেশ পুলিশ। রাতের মধ্যেই ঘোড়াগুলো খালাশ করা হবে। বেনাপোল বন্দর ছেড়ে ঘোড়াগুলো বুধবার সকাল নাগাদ ঢাকা রাজারবাগ পুলিশ লাইনসে পৌঁছাবে।

 

বেনাপোল পোর্ট থানার ওসি কামাল হোসেন ভূইয়া বলেন, ‘আমদানি করা ঘোড়া দ্রুত খালাসের জন্য প্রশাসনের পক্ষ থেকে সব ধরনের সহযোগিতা সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষকে করা হয়েছে।’