চুয়াডাঙ্গায় পৃথক সড়ক দুর্ঘটনায় ৩ জন নিহত

চুয়াডাঙ্গায় পৃথক সড়ক দুর্ঘটনায় ৩ জন নিহত হয়েছেন। এর মধ্যে আলমডাঙ্গা উপজেলায় ট্রাক উল্টে ২ জন ও জীবননগর উপজেলায় ট্রাক্টর উল্টে একজনের মৃত্যু হয়েছে।

 

জীবননগর থানার অফিসার ইনচার্জ (তদন্ত) স্বপন কুমার দাস বলেন, প্রতিদিন রাতের বেলা কিছু ব্যক্তি ট্রাক্টরে মাটি বহন করে বিভিন্ন ইটভাটায় সরবরাহ করে থাকে। ঘটনার সময় দুর্ঘটনা কবলিত ট্রাক্টরের চালক খালী ট্রাক্টর নিয়ে যাচ্ছিল। গ্রামের মোড়ে আরেকটি যানবাহনকে পাশ কাটাতে গেলে টাক্টরটি উল্টে যায়।

 

সে সময় চালকের পাশে বসে থাকা তারই সহকারী হাসান উল্টে যাওয়া ট্রাক্টরের নীচে চাপাপড়ে ঘটনাস্থলেই নিহত হয়। লাশ উদ্ধার করে এদিন সকালেই থানায় নেয়া হয়। নিহত হাসানের পরিবারের পক্ষ থেকে এ দুর্ঘটনার বিষয়ে কোন অভিযোগ না থাকায় ময়না তদন্ত ছাড়াই লাশ দাফনের জন্য পরিবারের সদস্যদের কাছে দিয়ে দেয়া হয়েছে।

 

তিনি আরো জানান, উল্টে যাওয়া ট্রাক্টর ওঠানো না যাওয়ার কারনে সেটা থানা হেফাজতে নেয়া সম্ভব হয়নি। তাছাড়া ট্রাক্টরের গায়ে নম্বর প্লেট না থাকায় মালিককে এখনো সনাক্ত করা দ্রুহ হচ্ছে। তবে ট্রাক্টরটি জীবননগর পৌরসভার ৭ নম্বর ওয়ার্ডের বাসিন্দা মজিবর রহমানের বলে জানা যাচ্ছে। তদন্ত করে এ ব্যাপারে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

 

গোয়ালপাড়া গ্রামের পল্লী চিকিৎক সামসুল হুদা জানায়, হাসান ট্রাক্টরের সহকারী হলেও সে সকালে নিজেই ট্রাক্টর চালিয়ে গঙ্গাদাসপুর গ্রামের ভৈরব নদী খননের পর পড়ে থাকা মাটি ভাই ভাই ব্রিকফিল্ডে সরবরাহ করার জন্য যাচ্ছিল। টাক্টরটি গ্রামের মাঝ বরাবর গেলে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে রাস্তার পাশে একটি খাদে উল্টে পড়ে। এ সময় হাসান ট্রাক্টরের নীচে চাপাপড়ে নিহত হয়।

 

 

এদিকে চুয়াডাঙ্গার আলমডাঙ্গায় ভূট্টা বোঝায় ট্রাক নিয়ন্ত্রন হারিয়ে কুষ্টিয়া রোডে শ্রীরামপুর কমুনিটি হাসপাতালের পাশে ক্যানালের মধ্যে পড়ে ২ জন নিহত হয়েছে। নিহতরা হলেন ট্রাক চালক দামুড়হুদার ইব্রাহিমপুর গ্রামের ওহিদুলের ছেলে আলামিন (৩৮) ও একই গ্রামের হাফিজুল ইসলামের ছেলে আশিক(২৮)।

 

পুলিশ জানায়,চুয়াডাঙ্গার সরোজগঞ্জ বাজার থেকে ঢাকা মেট্রো-ট-১৪-২১২৯ নম্বর ট্রাক ভূট্টা বোঝায় করে কুষ্টিয়া যাচ্ছিল । পথিমধ্যে আলমডাঙ্গা শ্রীরামপুর গ্রামে একটি ড্রাম ট্রাক পিছন থেকে ভূট্টা বোঝায় ট্রাককে ধাক্কা দেয় । এতে ট্রাকটি পাশে ক্যানেলের মধ্যে পড়ে যায় । ঘটনাস্থলে চালক ও হেলপার ২ জনই নিহত হয়েছে।লাশ বর্তমানে আলমডাঙ্গা থানায় রয়েছে। বিষয়টি নিশ্চিত করেছে আলমডাঙ্গা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা সাইফুল ইসলাম ।