ঈদের কেনাকাটা করে বেনাপোল দিয়ে ফিরছে শত শত পাসপোর্টযাত্রী

দীর্ঘ মানব স্রোত আর ব্যস্ততারা হুড়োহুড়ি। কত দ্রুত সময়ে যাওয়া যায় সবার মাঝে যেন এমন পাল্লা। পা বাড়ালেই বিদেশ। তাতে ঝুকি ঝামেলা, দুর্ভোগ কী বা যায় আসে। সুবিধাও তো কম নয়? প্রতিবেশি দেশ ভারত যেতে প্রতিদিন হাজার হাজার যাত্রীর কোলাহলে পূর্ণ এখন দেশের প্রধান স্থলবন্দর বেনাপোল। ঈদকে কেন্দ্র করে এ অবস্থা যোগ করেছে ভিন্ন মাত্রা।

 

ভিসা পদ্ধতি সহজলভ্য হওয়ায় এ দেশের মানুষের ভারতে যাতায়াত উল্লেখযোগ্য হারে বাড়ছে। দেশের বৃহত্তম স্থলবন্দর ও আন্তর্জাতিক চেকপোস্ট বেনাপোল ও ভারতের পশ্চিমবঙ্গের প্রধান নগরী কোলকাতার দুরত্ব মাত্র ৮৪ কিলোমিটার। যোগাযোগ ব্যবস্থা ভাল হওয়ায় অল্প খরচে স্বল্প সময়ে কোলকাতাসহ ভারতের বিভিন্ন  প্রদেশে অনায়াসে যাওয়া যায়।

 

ঈদকে কেন্দ্র করে ভারত যাতায়াতের সংখ্যা বেড়ে গেছে কয়েকগুন। গত ২৫ এপ্রিল থেকে ২৯ এপ্রিল ৫ দিনে  বেনাপোল চেকপোস্ট দিয়ে ১৬ হাজার ৬৩৫ জন পাসপোর্টযাত্রী ভারতে যাতায়াত করেছে। এদের মধ্যে ভারতে গেছেন ১১ হাজার ৬৪৩ জন আর ভারত থেকে ফিরেছেন ৪ হাজার ৯৯২ জন। ৫দিনের মধ্যে ২৯ এপ্রিল সব থেকে বেশি ৩ হাজার ১৭৮ জন পাসপোর্টযাত্রী ভারতে গেছেন। যা গত সপ্তাহ থেকে দ্বিগুন।

 

ঈদের কেনাকাটায় হাজার কোটি টাকা চলে যাচ্ছে ভারতে। আর দেশের ব্যবসায়ীদের মাথায় হাত উঠেছে। বেনাপোলসহ আশেপাশের এলাকার ব্যবসায়ীরা বলছেন, ভারতের ভিসা ব্যবস্থা আগের তুলনায় অনেক সহজলভ্য হওয়ায় ঈদে একটু স্বচ্ছল মানুষ মাত্রই কেনাকাটা করতে ছুটেছেন ভারতে। সেখান থেকে পরিবারের জন্য মালামাল কিনে দলে দলে ফিরে আসছেন যাত্রীরা।

 

কোলকাতায় ঈদ বাজারে বাংলাদেশি ক্রেতা ধরতে ভারতে গড়ে উঠেছে নতুন নতুন বাজার। কোলকাতার নিউমার্কেট, বড় বাজার মীর্জা গালিব স্ট্রিট, বেলগাছিয়া, চিৎপুর, টালিগজ্ঞ পার্ক সার্কাস, এন্টালি, আনোয়ার শাহ রোড, মল্লিকবাজার, রাজাবাজার, ধর্মতলার টিপু সুলতান মসজিদ চত্বর, মেটিয়ানুরুজ, খিদিরপুর, পাক স্ট্রিট, জাকারিয়া স্ট্রিট, বড় বাজার এলাকায় ইতোমধ্যে ঈদের জমজমাট বাজার শুরু হয়েছে। এসব এলাকায় অস্থায়ী ভিত্তিতে দোকানপাট গড়ে উঠেছে।

 

এর বাইরে বিভিন্ন সিটি মলে ঈদ উপলে কিছু নির্দিস্ট পণ্যের উপর বিশেষ ছাড়ও দেওয়া হচ্ছে। আর স্বল্প মূল্যে মালামাল কিনে সে কারণে হাজার হাজার পাসপোর্টযাত্রী এখন ফিরছেন বাংলাদেশে। এপারে নির্বিঘ্নে যাতায়াত করতে পারলেও ওপারে ইমিগ্রেশন কাস্টমস ও বিএসএফের হয়রানিতে নাকাল বাংলাদেশী পাসপোর্টযাত্রীরা।