রাতে নিখোঁজ সকালে মিলল শ্রমিকের ঝুলন্ত লাশ আমগাছে

বরিশালের উজিরপুর উপজেলার ধামুরায় সোহাগ হাওলাদার (৩৪) নামের ‍এক করাতকল শ্রমিকের ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করেছে থানা পু‌লিশ। সোহাগ পার্শ্ববর্তী বানারীপাড়া উপজেলার ইলুহার গ্রামের আব্দুল মান্নান হাওলাদারের ছে‌লে।

 

তিনি ধামুরা ‍এলাকায় সিরাজ খানের করাতকলে ( স্ব-মিল) শ্রমিকের কাজ করতেন এবং স্ত্রী ও তিন সন্তান নিয়ে তওই এলাকার দেলোয়ার খানের বাড়িতে ভাড়ায় থাকতেন।

 

স্ত্রী রুমা বেগম জানান, মঙ্গলবার (০৩ মে) দিবাগত রাত সাড়ে ১১টার দিকে সাংসারিক নানা বিষয় নিয়ে তাদের মধ্যে ঝগড়া হয়। এ সময় রাগে তিনি ঘরের হাঁড়িতে থাকা সব খাবার বাহিরে ফেলে দেন।

একপর্যায়ে সোহাগ তা হাতে থাকা মোবাইলফোন আছাড় মেরে ভেঙে ফেলেন। এ সময় তার বড় ছেলে মারুফ হাওলাদার (১৫) মায়ের পক্ষ নিয়ে কথা বলায় ক্ষিপ্ত হয়ে সোহাগ ছেলের কানে কামড় দেন। এতে ছেলেটির কানে ক্ষত হয়।

এরপর সোহাগ একটি টর্চলাইট ও স্ত্রীর একটি ওড়না নিয়ে ঘর থেকে বের হয়ে যান।

 

বুধবার ৪ মে সকালে ঘুম থেকে জেগে প্রতিবেশীরা বসতঘরের পাশের একটি আমগাছের ডালে সোহাগের মৃতদেহ ঝুলতে দেখে থানা পুলিশকে খবর দেন। পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে মৃতদেহ উদ্ধার করে।

 

এ প্রসঙ্গে উজিরপুর মডেল থানার অফিসার ‍ইনচাার্জ (ওসি) আলী আর্শাদ জানান, সোহাগের মৃত্যুরহস্য উদঘাটনে তার লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য বরিশাল শেবাচিম হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। এ ঘটনায় থানায় অপমৃত্যু মামলা হয়েছে।