টরিক সিঙ্গাপুর বিডি চ্যামের সভাপতি , সম্পাদক আসাদ

‘বাংলাদেশ বিজনেস চেম্বার অব সিঙ্গাপুর’ (বিডি চ্যাম) এর সভাপতি নির্বাচিত হয়েছেন বিশিষ্ট ব্যবসায়ী ও সমাজসেবক সাহিদুজ্জামান টরিক। এছাড়া আমদানি রফতানি ব্যবসায়ী আসাদ মামুনকে সাধারণ সম্পাদক করা হয়েছে। মঙ্গলবার সন্ধ্যায় ১৫ সদস্য বিশিষ্ট পূর্ণাঙ্গ কমিটির নাম ঘোষণা করা হয়।

এর আগে সিঙ্গাপুরের ৮৮ ওয়েন রোডে সংগঠনের কার্যালয়ে এক সভা অনুষ্ঠিত হয়। এতে সংগঠনের ভবিষ্যৎ কর্মপরিকল্পনা সম্পর্কে বিশদ আলোচনা হয়। এছাড়া বিডি চ্যাম’র সদস্যদের জন্য একটি ব্যবসা বান্ধব পরিবেশ নিশ্চিতকল্পে কর্মকৌশল নিয়ে আলোচনা করেন সংগঠনের নেতারা। সিঙ্গাপুরে প্রবাসী বাংলাদেশি ব্যবসায়ীদের গুরুত্বপূর্ণ সংগঠন হিসাবে স্বীকৃত ‘বিডি চ্যাম’।

 

সিঙ্গাপুর প্রবাসী ব্যবসায়ীরা জানান, চুয়াডাঙ্গার কৃতি সন্তান সাহিদুজ্জামান টরিক দীর্ঘ তিন দশক ধরে সিঙ্গাপুরে বসবাস করছেন। প্রবাসে থেকে ব্যবসার পাশাপাশি বিভিন্ন সামাজিক কর্মকাণ্ডে নিজেকে নিয়োজিত রেখেছেন তিনি। একজন উদার এবং দানশীল ব্যক্তি হিসেবে প্রবাসী বাংলাদেশিদের কাছে তার পরিচিত রয়েছেন। তিনি এর আগেও বিডি চ্যামের সভাপতি হিসাবে দায়িত্ব পালন করেন। তিনি সিঙ্গাপুরে বাংলাদেশ সোসাইটিরও সভাপতি।

 

জানা যায়, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে উচ্চশিক্ষা শেষ করে ১৯৯৫ সালে সিঙ্গাপুরে পাড়ি জমান টরিক। অক্লান্ত শ্রম, মেধা আর নিষ্ঠার মধ্য দিয়ে তিনি একজন প্রতিষ্ঠিত ব্যবসায়ীতে পরিণত হন। সিঙ্গাপুরে ট্যুরিজম এবং হোটেল সেক্টরে ব্যবসা রয়েছে তার। দীর্ঘ সময় প্রবাসে থাকলেও যেকোনো সংকটে দেশে ছুটে আসেন তিনি। করোনা মহামারিকালে আর্তমানতার সেবায় তার উদ্যোগ অন্যন্য। ব্যক্তিগত উদ্যোগে বিপুল সংখ্যক মানুষকে খাবার এবং চিকিৎসা সহায়তা দেন তিনি। এছাড়া বাংলাদেশ থেকে সিঙ্গাপুরে ভ্রমণ কিংবা চিকিৎসা নিতে যাওয়া ব্যক্তিদের অন্যতম ভরসার নাম টরিক।

 

বাংলাদেশের খ্যতিমান গায়ক এন্ড্র–কিশোর সিঙ্গাপুরে চিকিৎসা নিতে গেলে তার পাশে দাঁড়ান তিনি। এন্ড্রকিশোর দীর্ঘ ৬ মাসেরও বেশি সময় স্ব-স্ত্রীক তার হোটেলই অবস্থান করেন। মাউন্ট এলিজাবেথ হাসপাতালে এন্ড্রকিশোরের বিপুল অংকের চিকিৎসার ব্যয় বহনে উল্লেখযোগ্য সহায়তা দেন তিনি। এছাড়া বাংলাদেশের বহু সংখ্যক রাজনীতিবিদ সিঙ্গাপুরে তার আতিথেওতায় মুগ্ধ হয়েছেন। ব্যক্তিগত জীবনে টরিক ধর্মভীরু, সদালাপি এবং বিনয়ী।

 

বুধবার এক প্রতিক্রিয়ায় সাহিদুজ্জামান বলেন, ‘সিঙ্গপুরে বাংলাদেশি ব্যবসায়ীদের ব্যবসা সম্প্রসারণ ও তাদের সুযোগ-সুবিধা নিয়ে তিনি কাজ করবেন। এছাড়া বাংলাদেশে সিঙ্গাপুরের বিনিয়োগ আরও বাড়ানোর ক্ষেত্রে বিডি চ্যাম প্লাটফরম সরকারকে সহায়তা করবে।

 

বিডি চ্যামের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, কমিটির নির্বাচিত সদস্যরা আগামী দুই বছর (২০২২-২৪) দায়িত্ব পালন করবে।

 

কমিটির অন্যরা হলেন- সহ-সভাপতি মনিরুজ্জামান ও আমানুল ইসলাম, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ইশতিয়াক আহমেদ, সাংগঠনিক সম্পাদক আবু সায়েম আজাদ, কোষাধ্যক্ষ ফিরোজ আহমেদ চৌধুরী, সহকারী কোষাধ্যক্ষ মোহাম্মদ হোসাইন, কাউন্সিল মেম্বার সামসুর রহমান ফিলিপ, মাহবুব আলম, আলী মোস্তফা, মোহাম্মদ আশরাফুর রহমান খান, জাহিদুল কবির, তুহিন ও সাব্বির হাসান শাহান।