দৌলতপুরে পাটক্ষেত থেকে গৃহবধূর ক্ষতবিক্ষত লাশ উদ্ধার

কুষ্টিয়ার দৌলতপুরে সোনাবানু (৫০) নামে এক গৃহবধূকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে হত্যা করা হয়েছে। শুক্রবার রাত ৮টার দিকে উপজেলার আদাবড়িয়া ইউনিয়নের ডাংমড়কা মুচিপাড়ায় গৃহবধূর বাড়ির পাশের পাটক্ষেত থেকে তার ক্ষতবিক্ষত লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

 

নিহত গৃহবধূ ডাংমড়কা মুচিপাড়া এলাকার ইসমাইল হোসেনের স্ত্রী।

 

স্থানীয়রা জানান, সোনাবানু শুক্রবার বিকেল ৪টার দিকে তাদের পোষা গবাদি পশুর জন্য মাঠে ঘাস কাটতে যায়। পরে একই এলাকার আলমগীর হোসেন (১৬) নামে এক তরুণ সন্ধ্যা ৬টার দিকে ওই গৃহবধূর ক্ষতবিক্ষত লাশ ইমন হোসেনের পাটক্ষেতে পড়ে থাকতে দেখে স্থানীয়দের জানায়।

 

খবর পেয়ে দৌলতপুর থানা পুলিশ নিহত গৃহবধূর লাশ উদ্ধার করে থানায় নেয়। পূর্ব শত্রুতার জেরে ওই গৃহবধূকে হত্যা করে লাশ পাটক্ষেতে ফেলে রাখা হয়েছে বলে প্রাথমিকভাবে ধারণা করছে পুলিশ।

 

দৌলতপুর থানার ওসি এস এম জাবীদ হাসান সমকালকে জানান, লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে পাঠানো হচ্ছে। তবে কে বা কারা এ হত্যাকাণ্ড ঘটিয়েছে তা ক্ষতিয়ে দেখা হচ্ছে।