মালয়েশিয়ায় যেতে নিবন্ধন প্রক্রিয়া শুরু, যেভাবে করবেন

মালয়েশিয়ায় কর্মী হিসেবে গমনেচ্ছুদের জনশক্তি, কর্মসংস্থান ও প্রশিক্ষণ ব্যুরোর (বিএমইটি) নিবন্ধন প্রক্রিয়া শুরু হয়েছে। আগামীকাল সোমবার (১৩ জুন) থেকে শুরু হচ্ছে নাম নিবন্ধন। মালয়েশিয়ায় যেতে ইচ্ছুক বাংলাদেশিদের বিএমইটি ডাটাবেজে অন্তর্ভূক্ত হওয়ার অনুরোধ জানিয়েছে প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়।

 

রবিবার (১২ জুন) এক বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানিয়ে বিএমইটি জানায়, জেলা কর্মসংস্থান অফিস কিংবা অনলাইনে ‘আমি প্রবাসী’ অ্যাপের মাধ্যমে এই নিবন্ধন করা যাবে।

 

এক নোটিশে মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, বৈদেশিক কর্মসংস্থান ও অভিবা্সী আইন ২০২৩ এর ধারা ১৯ এর উধারা ৩ এ বিএমইটি ডাটাবেজে নিবন্ধিত কর্মীর তালিকা হতে বৈদেশিক কর্মসংস্থানের জন্য উন্মুক্তভাবে কম্পিউটারের মাধ্যমে স্বয়ংক্রিয়ভাবে দৈবচয়নের ভিত্তিতে কর্মী নির্বাচন করার বিধান রয়েছে।

তদানুযায়ী মালয়েশিয়ায় গমনেচ্ছু কর্মীদের বিএমইটি ডাটাবেজে অন্তর্ভূক্ত হওয়ার অনুরোধ জানানো হচ্ছে।

নিম্নোক্ত যেকোন স্থান ও পদ্ধতিতে নিবন্ধন করা যেতে পারে।

 

বিএমইটির আওতাধীন সকল জেলা কর্মসংস্থান ও জনশক্তি অফিস (ডিএইমও) অথবা নির্ধারিত কারিগরী প্রশিক্ষণ কেন্দ্রে(টিটসি) সরাসরি উপস্থিত হয়ে নিবন্ধন করা যাবে।

নিবন্ধনের জন্য ২০০ টাকা অফেরতযোগ্য সরকারি পরিশোধ করতে হবে।

 

এছাড়া ডাটাবেজে নিবন্ধনের জন্য ঐচ্ছিক ও অতিরিক্ত চ্যানেল হিসেবে সরকার কর্তৃক অনুমোদিত আমি প্রবাসী অ্যাপ ডাউনলোড করে নিবন্ধন করা যাবে। এ ক্ষেত্রে সফল নিবন্ধনের জন্য সরকারি নিবন্ধন ফি ২০০ টাকার অতিরিক্ত আমি প্রবাসী অ্যাপের সার্ভিস চার্জ করসহ ১০০ টাকা পরিশোধ করতে হবে।

কেবলমাত্র ১৮ থেকে ৪৫ বছর বয়সিরাই নিবন্ধন করতে পারবেন।

 

নিবন্ধন নম্বর ও এর কার্যকারিতা নিবন্ধনের তারিখ থেকে ২ বছর বৈধ থাকবে। ইতোমধ্যে যারা বিদেশে গমনের জন্য নিবন্ধন করেছেন তাদের নতুন করে নিবন্ধনের প্রয়োজন নেই।

কারিগরি প্রশিক্ষণ কেন্দ্র (টিটিসি) এবং ইনস্টিটিউট অব মেরিন টেকনোলজি (আইএমটি) অথবা অন্যান্য বৈধ কারিগরি প্রতিষ্ঠান হতে অর্জিত দক্ষতা সনদ আপলোড করলে দক্ষ কর্মীগণ বৈদেশিক কর্মসংস্থানের জন্য অগ্রাধিকার পাবেন।

সফল নিবন্ধনের জন্য নিম্নোক্ত সনদপত্রাদি দাখিল/আপলোড করতে হবে:

পাসপোর্ট, পাসপোর্ট সাইজের ছবি, নিজের মোবাইল নম্বর ইমেইল(যদি থাকে), দক্ষতা সনদ (যদি থাকে।
বিস্তারিত তথ্যের জন্য ভিজিট করুন: www.bmet.gov.bd