জীবননগরে দুর্ঘটনায় আহত দুই তরুণের শরীর থেকে ফেনসিডিল উদ্ধার

চুয়াডাঙ্গার জীবননগরে ফেনসিডিল বহনকারী মটরসাইকেলের ধাক্কায় এক পথচারী গুরুতরভাবে আহত হন। এ সময় ওই দুই তরুণের শরীর থেকে বিশে কায়দায় লুকানো ৮১ বোতল ফেনসিডিল উদ্ধার করা হয়। সোমবার (১৩ জুন) রাতে এ ঘটনা ঘটে।

 

সোমবার রাত সাড়ে ১০ টার দিকে দর্শনা-জীবননগর সড়কের পেয়ারা তলার মা বাবা ইট ভাটার নিকট এ দুর্ঘটনা ঘটে।

 

আটককৃতরা হলেন,দর্শনা রাঙ্গিয়াপোতার ঘোনা পাড়া রফিকুল ইসলামের ছেলে আলামিন(২০) ও দর্শনা সুলতান পুর মমিনুল হকের ছেলে শিপ্লব(২২)।

তাদের নিকট থেকে ৮১ পিচ ভারতীয় নিষিদ্ধ ফেনসিডিল ও একটি এপাসি আরটিআর গাড়ি জব্দ করেন।

 

স্থানীয় ও পুলিশ সূত্রে জানা যায়, দর্শনা থেকে দু’জন ব্যক্তি এপাসি আরটিআর গাড়ি যোগে জীবননগরের দিকে যাচ্ছিল। পথিমধ্যে মনোহরপুর পেয়ারা তলা মা বাবা ইট ভাটার নিকটে আসলে রাস্তার পার হওয়ার সময় পানুরা খাতুন নামক এক মহিলাকে ধাক্কা দিলে তিনজনই গুরুতর ভাবে আহত হয়।

 

স্থানীয় লোকজন ছুটে এসে তাদেরকে উদ্ধার করে চিকিৎসার জন্য জীবননগর স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স আনার সময় শিপ্লব ও আলামিনের দেহে ভিতরে বিশেষ কায়দায় ফেনসিডিল দেখতে পেলে স্থানীয় ব্যক্তিরা পুলিশকে খবর দেন।

 

ঘটনাস্থল থেকে তিনজনকে উদ্ধার করে চিকিৎসার জন্য উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ভর্তি করান। পানুরা খাতুনের অবস্থা আশংকাজনক হওয়ায় উন্নত চিকিৎসার জন্য তাকে কুষ্টিয়া সদর হাসপাতালে রেফার্ড করেন।এবং অপর দুজন ব্যক্তি পুলিশের হেফাজতে চিকিৎসাধীনভাবে আছেন।

 

এব্যপারে জীবননগর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আব্দুল খালেক ঘটনাটি সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, ঘটনাটি শোনার পর ফোর্স পাঠিয়ে ঘটনাস্থল থেকে দু’জনকে আটক করে চিকিৎসার জন্য উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ভর্তি করা হয়েছে। এব্যপারে আটককৃতদের বিরুদ্ধে থানায় একটি মামলা দায়েরের প্রক্রিয়া চলছে।