অভয়নগরে ভূয়া ইনকাম ট্যাক্স অফিসার আটক

যশোর জেলার অভয়নগর উপজেলায় ইনকামট্যাক্সের অফিসার পরিচয় দিয়ে ভূয়া টিএন সার্টিফিকেট প্রদান করে নগদ টাকা আদায়কালে  (২ জুলাই) শনিবার সকালে সুন্দলী বাজার থেকে উৎপল কুমার শীল নামের এক যুবককে আটক করে স্থানীয় জনগণ ও বাজারের ব্যবসায়ীরা।

 

আটকের পরে গণধোলাই দিয়ে অভয়নগর থানা পুলিশে দিয়েছে স্থানীয় সুন্দলী বাজারের ব্যবসায়ীরা। এসময় বাজারের ব্যবসায়ীদের কাছে দেয়া ভূয়া টিন সার্টিফিকেট ও একটি ভূয়া নিয়োগপত্র উদ্ধার করেছে পুলিশ।
আটক উৎপল যশোরের মণিরামপুর উপজেলার চাপাকোনা গ্রামের রবীন্দ্রনাথ শীলের ছেলে।

 

পুলিশ ও স্থানীয় ব্যবসায়ীদের সূত্রে জানা গেছে, উৎপল কুমার শীল নিজেকে ইনকাম ট্যাক্স অফিসার পরিচয় দিয়ে অভয়নগরের সুন্দলী বাজারে বেশ কয়েকদিন যাবৎ ভূয়া টিন সার্টিফিকেট দিয়ে টাকা আদায় করে আসছিলো। গতকাল শনিবার সকালে একইভাবে টাকা নিতে আসলে ব্যবসায়ীদের সন্দেহ হয়। এসময় তারা তার কাছে পরিচয়পত্র দেখতে চাইলে সে দেখাতে না পারায় ব্যবসায়ীরা তাকে উত্তম মাধ্যম দিয়ে অভয়নগর থানা পুলিশে খবর দেয়। পরে পুলিশ গিয়ে তাকে আটক করে থানায় নিয়ে আসে।

 

ব্যবসায়ীরা জানায়, উৎপল কুমার শীল নিজেকে ইনকাম ট্যাক্সের অফিসার পরিচয় দিয়ে প্রায় ৩০ জন ব্যবসায়ীর কাছ থেকে ২/৩ হাজার টাকা করে আদায় করেছে। এছাড়া সে ওই এলাকার চৈতালী মন্ডল নামের এক মেয়েকে কাস্টমস্ এ কম্পিউটার অপারেটর পদে চাকরির ভূয়া নিয়োগপত্র দিয়ে ৪০ হাজার টাকা আত্মসাৎ করেছে। ভূয়া নিয়োগপত্রের কপিও উদ্ধার করেছে পুলিশ।

 

অভয়নগর থানার ওসি (তদন্ত) মিলন কুমার মন্ডল এ তথ্য নিশ্চিত করে বলেন, স্থানীয়দের অভিযোগের ভিত্তিতে উৎপল কুমার শীল নামে এক যুবককে সুন্দলী বাজার থেকে আটক করা হয়েছে। বেশ কিছু টিন সার্টিফিকেট ও একটি নিয়োগপত্র উদ্ধার করা হয়েছে। ধারনা করা হচ্ছে এ গুলো ভূয়া। যাচাই-বাছাই শেষে মামলার প্রস্তুতি নেয়া হবে।